Date : 2020-12-03

পরপর কন্যা সন্তান জন্ম দেওয়ায় অত্যাচার গৃববধূকে…

কোচবিহার: দুই কন্যা সন্তান আগেই ছিল। কিন্তু সমস্যা হল তৃতীয় সন্তানকে নিয়ে। তৃতীয় সন্তান মেয়ে হওয়ায় গৃহবধূকে বাড়ি থেকে বের করে দিলেন স্বামী। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহারের মেখলিগঞ্জের বাগডোকরা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। পরপর তিনটি কন্যা সন্তান জন্ম দেওয়ার অপরাধে স্বামীর ভিটে ছাড়া হলেন এক মহিলা। অভিযোগ, তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেন তাঁর স্বামী। পাশাপাশি অভিযোগ উঠেছে, স্বামী ছাড়াও ওই প্রসূতিকে মারধর করেন স্বামীর তিন দাদা ও তার জা-রা। নিগৃহীতা মহিলার নাম সবিতা রায়। তাঁর বাপের বাড়ি ভোটবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। বছর পাঁচ আগে বিয়ে হয় সবিতার। অভিযোগ, বিয়ের পর প্রথম কন্যা সন্তান হওয়ার পর থেকেই অত্যাচার শুরু হয়। তারপর এক এক করে আরও দুই কন্যা সন্তান হওয়ার পরই অত্যাচারের মাত্রা বেড়ে যায়। কয়েক বছর আগে এই নিয়ে কুচলিবাড়ি থানার দারস্থও হয়েছিল নিগৃহীত মহিলা। কিন্তু নিগৃহীতা জানিয়েছেন, থানায় এই ঘটনা অভিযোগের পর মারধর না করার কথা জানিয়ে বাপের বাড়ি থেকে সবিতাকে তাঁর স্বামী মঞ্জু বর্মন নিয়ে যায়। বাড়ি নিয়ে এসে শুরু হয় আবারও মারধর। সেই অত্যাচার ক্রমশ বাড়তে থাকে। এরমধ্যে তৃতীয় সন্তান কন্যা হওয়ায় শনিবার বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয় এই মহিলাকে বলে অভিযোগ। ইতিমধ্যেই স্থানীয় থানায় গোটা বিষয়টি জানানো হলে পুলিশ পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।