Date : 2019-02-21

Breaking
পুলওয়ামার জের বাইশ গজে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলতে চাইছে না ভারত। দেশের ক্রিকেট মহলে ক্রমশই জোরালো হচ্ছে এই দাবি।
সন্ত্রাসবাদের মদতদাতাদের বিরুদ্ধে চাপ বাড়াতে রাজি সৌদি আবর। সৌদি রাজকুমার মহম্মদ বিন সলমনের সঙ্গে বৈঠকের পর জানালেন নরেন্দ্র মোদী। সন্ত্রাসবাদীদের গতিবিধি নিয়ে গোয়েন্দা তথ্য আদানপ্রদান হবে।
আদালত অবমাননার দায়ে দোষী সাব্যস্ত অনিল অম্বানি। চার সপ্তাহের মধ্যে সুদ সহ ৫৫৯ কোটি টাকা এরিকসনকে ফেরতের নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের। অন্যথায় জেলে যেতে হতে পারে অনিল অম্বানিকে।
ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর ভাড়া নির্ধারণ। প্রথম ২ কিলোমিটার পর্যন্ত ভাড়া থাকবে ৫ টাকা। ২ থেকে ৫ কিলোমিটার ভাড়া ১০ টাকা। ৫ থেকে ১০ কিলোমিটারের ভাড়া ২০ টাকা।
জাল শংসাপত্র দিয়ে অধ্যাপিকা নিয়োগের মামলায় দোষী সাব্যস্ত বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য দিলীপ সিনহা। দোষী সাব্যস্ত অধ্যাপিকা মুক্তি দেব ও কর্মসচিব দিলীপ মুখোপাধ্যায়।
ধর্মতলা এপিডিআররের যুদ্ধ বিরোধী মিছিল। মিছিল চলাকালীন হামলা একদল যুবকের। হামলা চালিয়েছে বিজেপি, অভিযোগ এপিডিআরের। ঘটনায় গ্রেফতার ৪।
হাওড়ায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি এক যুবককে। গুরুতর জখম যুবককে উদ্ধার করে বেলুড় থানার পুলিশ। এলাকায় চাঞ্চল্য।
গুজব ও হিংসা ছড়ানো নিয়ে ট্যুইট করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেশের রাজনৈতিক দলগুলির একাংশ থেকে ছড়ানো হচ্ছে গুজব। যা দেশের রাজনীতিতে দূষণ ছড়াচ্ছে নিন্দনীয় ভাবে। তোপ মুখ্যমন্ত্রীর।
রাজ্য সরকারের মুকুটে পরপর নতুন পালক। কন্যাশ্রী প্রকল্পের পর রাষ্ট্রসংঘের সেরা পাঁচে উৎকর্ষ বাংলা ও সবুজ সাথী প্রকল্প। ২টি প্রকল্প পাচ্ছে রাষ্ট্রসংঘের পুরস্কার। প্রকল্প দুটি মুখ্যমন্ত্রীর মস্তিস্ক প্রসূত।

২৪৪টি পর্ণসাইট বন্ধ করতে চলেছে বাংলাদেশ

ওয়েব ডেস্ক: ভারতের পথে এবার বাংলাদেশ। দিনকয়েকের মধ্যেই বন্ধ হতে চলেছে ২৪৪টি পর্নসাইট ৷ কিছু ওয়েবসাইটের লিঙ্ক বুধবার থেকেই বন্ধ করে দেওয়া হয়। বাংলাদেশের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার একটি ফেসবুক পোস্টে ২৪৪টি পর্নসাইট বন্ধের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি লিখেছেন, “২৪৪‌টি পর্ন সাইট বন্ধ ক‌রে‌ছি। অ‌ভিযান চলছে চলবে।” সূত্রের খবর, অশ্লীল তথ্য পরিবেশন করা ওয়েবসাইটগুলি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এখানেই শেষ নয়, প্রয়োজনে আরও কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তাঁরা। তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার আরও জানান, তাঁরা নিয়মিত খোঁজ চালাচ্ছেন। যেসব সাইটগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সেগুলি যদি আবার চালু হয় তবে তাঁরা সেগুলি ফের বন্ধ করে দেবেন। দৈনিক ভিত্তিতে এই কাজ করা হবে। এর পাশাপাশি বাংলাদেশে যাতে আর কোনো পর্ন সাইট না দেখা যায়, সে ব্যাপারেও সব ধরনের ব্যবস্থা নেবে বাংলাদেশ সরকার। প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালে বাংলাদেশ সরকার ৮৫টিরও বেশী পর্ণসাইট বন্ধ করে দেয়।