Date : 2019-02-21

Breaking
পুলওয়ামার জের বাইশ গজে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলতে চাইছে না ভারত। দেশের ক্রিকেট মহলে ক্রমশই জোরালো হচ্ছে এই দাবি।
সন্ত্রাসবাদের মদতদাতাদের বিরুদ্ধে চাপ বাড়াতে রাজি সৌদি আবর। সৌদি রাজকুমার মহম্মদ বিন সলমনের সঙ্গে বৈঠকের পর জানালেন নরেন্দ্র মোদী। সন্ত্রাসবাদীদের গতিবিধি নিয়ে গোয়েন্দা তথ্য আদানপ্রদান হবে।
আদালত অবমাননার দায়ে দোষী সাব্যস্ত অনিল অম্বানি। চার সপ্তাহের মধ্যে সুদ সহ ৫৫৯ কোটি টাকা এরিকসনকে ফেরতের নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের। অন্যথায় জেলে যেতে হতে পারে অনিল অম্বানিকে।
ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর ভাড়া নির্ধারণ। প্রথম ২ কিলোমিটার পর্যন্ত ভাড়া থাকবে ৫ টাকা। ২ থেকে ৫ কিলোমিটার ভাড়া ১০ টাকা। ৫ থেকে ১০ কিলোমিটারের ভাড়া ২০ টাকা।
জাল শংসাপত্র দিয়ে অধ্যাপিকা নিয়োগের মামলায় দোষী সাব্যস্ত বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য দিলীপ সিনহা। দোষী সাব্যস্ত অধ্যাপিকা মুক্তি দেব ও কর্মসচিব দিলীপ মুখোপাধ্যায়।
ধর্মতলা এপিডিআররের যুদ্ধ বিরোধী মিছিল। মিছিল চলাকালীন হামলা একদল যুবকের। হামলা চালিয়েছে বিজেপি, অভিযোগ এপিডিআরের। ঘটনায় গ্রেফতার ৪।
হাওড়ায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি এক যুবককে। গুরুতর জখম যুবককে উদ্ধার করে বেলুড় থানার পুলিশ। এলাকায় চাঞ্চল্য।
গুজব ও হিংসা ছড়ানো নিয়ে ট্যুইট করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেশের রাজনৈতিক দলগুলির একাংশ থেকে ছড়ানো হচ্ছে গুজব। যা দেশের রাজনীতিতে দূষণ ছড়াচ্ছে নিন্দনীয় ভাবে। তোপ মুখ্যমন্ত্রীর।
রাজ্য সরকারের মুকুটে পরপর নতুন পালক। কন্যাশ্রী প্রকল্পের পর রাষ্ট্রসংঘের সেরা পাঁচে উৎকর্ষ বাংলা ও সবুজ সাথী প্রকল্প। ২টি প্রকল্প পাচ্ছে রাষ্ট্রসংঘের পুরস্কার। প্রকল্প দুটি মুখ্যমন্ত্রীর মস্তিস্ক প্রসূত।

উত্তর মালদহ কেন্দ্রে প্রার্থী নিয়ে অসন্তোষ কংগ্রেসে

মালদহ: সদ্য দল ত্যাগ করে তৃণমূলে যোগদান করেছেন উত্তর মালদহ লোকসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস সাংসদ মৌসম বেনজির নূর। দলত্যাগ পর্ব মিটতেই উত্তর মালদহ কেন্দ্রে আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগে শূণ্যপদের প্রার্থী নিয়ে নজিরবিহীন সংঘাতে জড়িয়ে পড়লেন কংগ্রেসের শীর্ষস্থানীয় নেতারা। প্রয়াত গনি খান চৌধুরীর ভাই তথা দক্ষিণ মালদহের সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরী নিজের ছেলে বিধায়ক ঈসা খান চৌধুরীর নাম উত্তর মালদহেরর প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করে দিয়েছেন। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কংগ্রেসের একাংশের মধ্য তীব্র অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। এই কেন্দ্রে প্রার্থী হওয়াকে কেন্দ্র করে কোতয়ালী ভবনে কার্যত সম্মুখ সমরে অবতীর্ন হয় কংগ্রেসের দুটি গোষ্ঠি। মৌসম বেনজির নূর উত্তর মালদহ কেন্দ্রের দীর্ঘদিনের সাংসদ, ফলে ওই এলাকায় তার সংগঠনও অনেক বেশি মজবুত। তবে জেলা কংগ্রেসের এই অভ্যন্তরীন কলহে তৃণমূলের যে আখেরে রাজনৈতিক লাভ হতে চলেছে তেমনটাই অনুমান রাজনৈতিক মহলের। গনি খান চৌধুরীর বোনের মৃত্যুর পর এই কেন্দ্র থেকেই সাংসদ হন তার ভাগ্নি মৌসম বেনজির নূর। সেই প্রভাবকে বজায় রাখতে উত্তর মালদহ কেন্দ্রে সবরকম প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন তার ভাই আবু নাসের খান চৌধুরী। তিনি জানান, এলাকায় নির্বাচনী প্রচার শুরু হয়ে গেছে। অন্যদিকে এলাকার জেলা কংগ্রেস সভাপতি মোস্তাক মোল্লার দাবি, এখনো পর্যন্ত এ আই সি সি-র তরফে কোন প্রার্থী নির্দিষ্ট করা হয়নি এই কেন্দ্রের জন্য তাই আগে থেকে ব্যক্তি বিশেষে কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারে না কেউ। তিনি আরও জানান, কংগ্রেসের কিছু নির্দিষ্ট নিয়ম আছে সেই অনুসারে সিদ্ধান্ত নেবে শীর্ষ নেতৃত্ব। প্রার্থী নিয়ে কংগ্রেসের অভ্যন্তরীন সংঘাতের বিষয়ে উত্তর মালদহের তৃণমূল নেতা নরেন্দ্রনাথ তিওয়ারি বলেন, কংগ্রেসের গৃহযুদ্ধে শেষ পর্যন্ত লাভবান হবে তৃণমূলই। দলের অভ্যন্তরীন দ্বন্দ্বের ফলে কর্মীদের মনোবল নষ্ট হয়। অন্য দিকে ওই কেন্দ্রের তৃণমূলের হয়ে প্রার্থী হবেন দলত্যাগী সাংসদ মৌসম, তাই তাকে পরাজিত করতে গনি পরিবারের সদস্যই উপযুক্ত বলে মনে করছেন কংগ্রেসের একাংশের কর্মী সংগঠন। এদিকে কংগ্রেসের অভ্যন্তরীন জল্পনায় মৌসমের বিরুদ্ধে প্রার্থী হিসাবে নাম উঠে আসছে দীপা দাশমুন্সিরও। তবে শেষ পর্যন্ত সব জল্পনা উড়িয়ে এই বিষয়ে এ আই সি সি-এর সিদ্ধান্তের দিকেই তাকিয়ে আছেন প্রদেশ নেতৃত্ব।