Date : 2020-10-29

সুপ্রিম রায়ে স্বস্তিতে রাজীব কুমার

নয়া দিল্লি: সুপ্রিম কোর্টের রায়ে আপাতত স্বস্তিতে কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। সিবিআইয়ের করা মামলায় এদিন শীর্ষ আদালত জানিয়ে দিল, সিবিআইয়ের সামনে হাজিরা দিতে হবে রাজীব কুমারকে। পাশাপাশি শীর্ষ আদালত সিবিআইকে একটি শর্তও দিয়েছে। যে তাঁকে গ্রেফতার করা যাবে না। এর পাশাপাশি নিরপেক্ষ স্থান হিসাবে মেঘালয়ের শিলংয়ের সিবিআই দফতরে রাজীব কুমারকে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। রায় শোনার পর সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশকে ‘নৈতিক জয়’ বলে ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আরও বলেন, “আলোচনা চেয়ে সিবিআইকে ৫ টা চিঠি পাঠিয়েছিলাম। কিন্তু ওরাই আলোচনা করেনি।” এদিকে আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি আদালত অবমাননার অভিযোগে ডিজি, সিপি এবং মুখ্যসচিবকে হলফনামা দিয়ে কারণ জানানোর নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। ২০ ফেব্রুয়ারী এই মামলার পরবর্তী শুনানি । এদিন সকালে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ, বিচারপতি দীপক গুপ্ত ও বিচারপতি সঞ্জীব খান্নার বেঞ্চে শুনানি শুরু হয়। কোর্টরুমে তখন টানটান উত্তেজনা। সোমবার শীর্ষ আদালতে সিবিআইয়ের আইনজীবী তুষার মেহেতা নগরপালের বিরুদ্ধে সারদা কেলেঙ্কারিতে তথ্যপ্রমাণ নষ্টের অভিযোগ আনেন ৷ প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ-কে তিনি জানান, রাজীব কুমার সাক্ষ্যপ্রমাণ নষ্ট করছেন ৷ চার বার সমন জারি করার পরও তিনি হাজির হননি ৷ এমনকী, তদন্তে কোনওরকম সহযোগিতাও করেননি রাজীব কুমার ৷ এদিন শুনানির শেষে রাজ্যের তরফে আইনজীবী অভিষেক মনু সিংভি বলেন, “রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে গত ৫ বছরে কোনও এফআইআর করা হয়নি। ভারতীয় দণ্ডবিধির ২০১ ধারায় তথ্য লোপাটের অভিযোগেও কোনও এফআইআর হয়নি রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে। তাঁর পদকে অবমাননা করা হয়েছে।”