Date : 2020-10-22

সুস্থ থাকতে ঘরে আনুন রাইস ব্র্যান অয়েল

ওয়েব ডেস্ক: “অল্পেতে খুশি হবে,দামোদর শেঠ কি?/ মুড়কির মোয়া চাই, চাই ভাজা ভেটকি…”। খেতে ভালোবাসেন? কিন্তু আপনার পেট আর জিভের সম্পর্ক কি একেবারে আদায় কাঁচকলায়? বাড়ির খাবার বা রেস্তোরা একটু বেশী মশলাদার খাবারেই আপনার পেট হজমে নারাজ। তাহলে আপনার রান্নাঘরের মাসকাবারি বাজারে কিছু পরিবর্তন করুন। বাড়িতে আনুন রাইস ব্র্যান অয়েল। এই তেলের রয়েছে হাজার উপকারিতা। ব্রেনের পাশাপাশি স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে রাইস ব্র্যান অয়েল। নিউরোনের উপকার থেকে ভিটামিনের অভাব অনায়াসে পূরণ করে এই তেল। ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। এই তেলে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ফাইবার। তাই শরীরে ফাইবারের অভাব হলে প্রতিদিনের রান্নায় এই তেল ব্যবহার করা যেতেই পারে।

পুরুষদের ক্ষেত্রে হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা মহিলাদের তুলনায় বেশ খানিকটা বেশী থাকে। সেই সম্ভাবনাকে কিছুটা কমিয়ে দিতে সাহায্য করে রাইস ব্র্যান অয়েল। এই কারনে পুরুষদের জন্য এই তেল বিশেষ উপযোগী। এর পাশাপাশি ব্লাড সুগার প্রতিরোধও সাহায্য করে এই তেল। স্বাস্থ্যসচেতন মানুষেরা এই তেল ব্যবহার করতে পারেন। ডায়েট কন্ট্রোলে বিশেষ ভূমিকা নেয় রাইস ব্র্যান অয়েল। পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়ামের পাশাপাশি এই তেলে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন। রয়েছে ভিটামিন সি, ভিটামিন বি-৫ ও বি-৬। তবে পুরুষের ক্ষেত্রে এই তেল উপকারী হলেও মহিলাদের বিশেষ কিছু সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। গর্ভাবস্থায় বা ব্রেস্ট ফিডিং চলাকালীন এই তেল না খাওয়াই ভাল। পুরুষ এবং মহিলা উভয়ের ক্ষেত্রেই যদি কোনোও হজমের সমস্যা থাকে, চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এই তেল না খাওয়াই ভালো। নানাবিধ রোগ প্রতিরোধেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে এই তেল। হার্ট অ্যাটার্ক, কোলেস্টেরল, ব্লাড সুগার, ত্বকের সমস্যা, ওবিসিটি নিয়ন্ত্রনে রাখতে সাহায্য করে রাইস ব্র্যান অয়েল।