Date : 2021-06-15

পোস্টার থেকে উধাও সোনিয়ার ছবি, বিতর্কে দীপা

রায়গঞ্জ: আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে রায়গঞ্জে প্রচার শুরু করেছেন ওই কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী দীপা দাশমুন্সি। রায়গঞ্জ জুড়ে দীপার সমর্থনে প্রচুর ফ্লেক্স ও ব্যানার চোখে পড়বে। কিন্তু সেই পোস্টারে কোথাও নেই সোনিয়া গান্ধীর ছবি। তার পরিবর্তে দেখা যাচ্ছে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর ছবি। এমনকি প্রার্থীর সমর্থনে প্রত্যন্ত এলাকায় যে সভা হচ্ছে সেখানেও দেখা যাচ্ছে না সোনিয়া গান্ধীর কোন ছবি। রাতারাতি সোনিয়া গান্ধীর ছবি প্রচারের ময়দান থেকে সরে যাওয়ায় বিরোধী দল কটাক্ষ করেছে। কিন্তু সেক্ষেত্রেও কোন নির্ভরযোগ্য যুক্তি দেয়নি কংগ্রেস। এমনকি এলাকায় প্রার্থীর সমর্থনে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে দিয়ে সভা করানোর কথা বলা হয়েছে। রায়গঞ্জ দীর্ঘদিন কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি হিসাবে পরিচিত। বর্তমান বিদায়ী সাংসদ অবশ্য সিপিআইএম-এর মহম্মদ সেলিম। ২০১৪ সালে দীপা দাশমুন্সি ১৬৬৯ ভোটে মহম্মদ সেলিমের কাছে হেরে যায়। সেই সময় পর্যন্ত জেলার সবকটি পুরবোর্ড ও জেলা পরিষদ ও অধিকাংশ পঞ্চায়েত সমিতি কংগ্রেসের দখলে ছিল।

পরবর্তীতে কংগ্রেসের টিকিটে জেতা জনপ্রতিনিধিরা তৃনমূলে যোগদান করে। বর্তমানে রায়গঞ্জ ও কালিয়াগঞ্জের বিধায়ক ছাড়া আর কোনও জনপ্রতিনিধি কংগ্রেসে নেই। এতদিন পর্যন্ত এই জেলায় পঞ্চায়েত থেকে শুরু করে বিধানসভা ও লোকসভা নির্বাচনের প্রচারপর্বে কংগ্রেসের ফ্লেক্স ও ফেস্টুনে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর ছবির সাথে সোনিয়া গান্ধী ও প্রিয়রঞ্জন দাসমুন্সীর ছবি দেখা যেত। এবার সেই ঘটনার ব্যতিক্রম দেখছে সকলে। বামফ্রন্টের সঙ্গে আসন সমঝোতা নিয়ে টানাপোড়েনের জেরে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতে দেরি হয় কংগ্রেসের। তাছাড়া এলাকায় বিরোধী দলের বিরুদ্ধে ব্যানার পোস্টার উপড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। তাছাড়া কংগ্রেসের তরফে বলা হচ্ছে রাহুল গান্ধী কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি। প্রিয়াঙ্কা গান্ধি সক্রিয় ভাবে প্রচারে অংশগ্রহণ কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা উজ্জীবিত হয়েছেন। শারীরিক অসুস্থতার কারণে সোনিয়া গান্ধী এই মুহুর্তে রাজনৈতিক প্রচারের থেকে দূরে আছেন। কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, তাই ফ্লেক্সে তার ছবি থাকা বাধ্যতামূলক বলে মনে করে জেলা কংগ্রেস নেতৃত্ব।