Date : 2019-05-21

Breaking
৩০ মে শুরু বিশ্বকাপ। আগামীকাল ইংল্যান্ডে উড়ে যাচ্ছে ভারতীয় দল।দলের সবাই ফিট। এবার বিশ্বকাপ জেতা আমাদের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ, সাংবাদিক সম্মেলনে বললেন বিরাট কোহলি।
ভোটের ফল ঘোষণার দু দিন আগে খড়গপুরে চলল গুলি। আইআইটির কাছে এলোপাথাড়ি গুলি চালাল দুষ্কৃতীরা। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত ১।
কাঁকিনাড়ায় সন্ত্রাসের প্রতিবাদের জের। কাঁকিনাড়া ২৯ নম্বর রেল গেট অবরোধ স্থানীয়দের। ট্রেন লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি। প্রায় ৩ ঘন্টা পর অবরোধ প্রত্যাহার
ভাটপাড়ায় অর্জুন সিং ও তার বাহিনী তাণ্ডব চালাচ্ছে। উত্তর ২৪ পরগণার জেলা শাসককে নালিশ মদন মিত্রের। সন্ত্রাস বন্ধ হলে ভাটপাড়ায় রাজনৈতিক ভাবে প্রতিবাদ হবে হুঁশিয়ারি মদন মিত্র ও জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের।
বুথ ফেরৎ সমীক্ষায় হতাশ হবেন না। আমাদের মনোবল ভাঙতেই এই কৌশল নেওয়া হয়েছে। সকলে সতর্ক থাকুন। দলের সদস্যদের অডিও বার্তায় নির্দেশ প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর।
একশো শতাংশ ভিভিপ্যাট ও ইভিএম গণনার আর্জি খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট। এই ধরনের আবেদনের কোন সারবত্তা নেই। কড়া জবাব সুপ্রিম কোর্টের।
রাজ্যে মোট গণনা কেন্দ্র ৫৮টি। গণনা কেন্দ্রের নিরাপত্তায় মোতায়েন ৮২ কোম্পানি আধাসেনা। কাউন্টিং অবসারভারের সংখ্যা ১৪৪ থেকে বেড়ে হল ১৫৫। ৪টি গণনা হলের দায়িত্বে ১জন অবজারভার।
ইভিএম সুরক্ষা নিয়ে উদ্বেগে বিরোধীরা। ইভিএমের নিরাপত্তা নিয়ে দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনে বিরোধীরা। ভিভিপ্যাট গণনা পদ্ধতি নিয়ে কমিশনে প্রশ্ন বিরোধীদের।
কাঞ্চনজঙ্ঘা জয় করলেন বাঙালী পর্বতারোহী শেখ সাহাবুদ্দিন। সামিট সম্পন্ন করে আজ ইছাপুরের কালিতলার বাড়িতে ফিরলেন তিনি।তার এই সাফল্যে খুশি গোটা পরিবার।
আজ দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনে যাচ্ছে বিরোধীরা। ২৩ মে ফলপ্রকাশের আগে ইভিএমের নিরাপত্তা জোরদার করার দাবি।
ফের মাধ্যমিকে কলকাতাকে ছাপিয়ে গেল অন্য জেলা। মেধাতালিকার প্রথম দশে কলকাতার মাত্র ১, অন্য জেলার ৫০ মেধাবী। যাদের মধ্যে ২১ জন ছাত্রী, ৩০ জন ছাত্র।
মাধ্যমিক ২০১৯-র ফলপ্রকাশ। ৬৯৪ পেয়ে প্রথম পূর্ব মেদিনীপুরের সৌগত দাস। যুগ্ম দ্বিতীয় আলিপুরদুয়ারের শ্রেয়সী পাল ও কোচবিহারের দেবস্মিতা সাহা। তৃতীয় ক্যামেলিয়া রায় ও ব্রতীন মণ্ডল।

শরীরে যন্ত্রণা! ক্লান্তি! সুখের দাম্পত্যে ভিলেন কি তবে ডায়াবেটিস?

ওয়েব ডেস্ক : অফিসে ব্যস্ত সময়ে কাজ করতে করতে হঠাৎ মাথাটা ঘুরে গেল? অনেকেই গ্যাস অম্বলের ওযুধ খেয়ে নিশ্চিন্ত হয়ে যান, কিন্তু বিপদ আসার আগেই এবার সতর্ক হয়ে যান। আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের গবেষনা বলছে ডায়াবেটিস বয়স মানে না। যেকোন অবস্থায় আপনার শরীরকে কব্জা করে নিতে পারে এই রোগ। উপর থেকে সুস্থ মনে হলেও ভেতর থেকে কুরে কুরে খেয়ে নিতে পারে ডায়াবেটিস।

অনেকে হয়তো মিষ্টি খাওয়া ছেড়ে দিলেই ভাবেন ডায়াবেটিস আপনার টিকিও ছুঁতে পারবে না, কিন্তু এমনটা ভেবে নিশ্চিন্ত হওয়ার কোন কারণ নেই।

Diabetes

রক্তে শর্করার পরিমান যেমন অনিয়মিত খাওয়া দাওয়ার কারণেই বাড়ে না, বরং দীর্ঘসময় না খেয়ে থাকা, কাজের চাপে দুশ্চিন্তা, দীর্ঘ সময় শরীরকে বিশ্রাম দেওয়া ইত্যাদি কারণেও হতে পারে। আপনার অজান্তে দীর্ঘদিন ডায়াবেটিস শরীরের বাসা বেঁধে থাকলে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গকে নষ্ট করে দিতে পারে।

Diabetes

যেমন চোখের রেটিনা নষ্ট করে আপনাকে অন্ধ করে দিতে পারে, অকেজো হতে পারে আপনার দুটি কিডনিও, বন্ধ করে দিতে পারে একাধিক ব্লাড ভেসেল্স। ডাক্তারি পরিভাষায় ডায়াবেটিসের আরেক নাম ‘সাইলেন্ট কিলার’।

Diabetes

তাই গোপন আততায়ীর হাত থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে আগে থেকে জেনে নিন ডায়াবেটিসের উপসর্গগুলি। এই ৫ টি উপসর্গ শরীরে দেখা দিলে এখনই পরামর্শ নিন ডাক্তারের….

Diabetes

যদি ঘন ঘন হাত বা পায়ের আঙুলে অসাড় অবস্থা অনুভব করেন তবে অপেক্ষা না করে এখনই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। কারণ, রক্তে উচ্চ শর্করা থাকলে শিরা ও ধমনীতে রক্ত চলাচলের গতিবেগ লঙ্ঘন হয়।অনিয়মিত রক্ত চলাচলের কারণে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ ঘনঘন অবশ হতে পারে।

Diabetes

রক্তে শর্করার পরিমান বেশি থাকলে সবার আগে সেই চিহ্ন ফুটে উঠতে থাকবে আপনার ত্বকে। ফলে আপনার ত্বকে রুক্ষতা, বলিরেখার প্রবনতা বাড়তে থাকবে। কনুই ও হটুতে কালো দাগ দেখা দেবে, এছাড়া মুখে একাধিক কালো ছোপ হতে পারে। ডায়াবেটিসের কারণে ত্বকের সাধারণ তৈলাক্ত ভাব নষ্ট হয়ে যায়।

হৃদয়ে লেখো নাম ,সে নাম রয়ে যাবে…

Diabetes

শারীরিক গঠনই কী নারীত্বের শেষ কথা? প্রশ্ন তুললেন স্বস্তিকা

কিছুক্ষণ কাজ করেই ঘাড়ে বা মাথায় যন্ত্রণা এবং ক্লান্তি ভাবের কারণ ডায়াবেটিস। অনেকেই উপসর্গ বুঝতে না পেরে বাজার চলতি পেইন কিলার খেয়ে নেন মুক্তি পাওয়ার আসায়। কিন্তু গোড়ায় গলদ সেই ডায়াবেটিস। এই উপসর্গ গুলি দেখা দিলে একবার রক্ত পরীক্ষা করিয়ে নিশ্চিন্ত হয়ে যান।

Diabetes

শুধু শরীরকে নয়, ডায়াবেটিস ভাঙতে পারে আপনার সুখী দাম্পত্য জীবনকে। যৌন সঙ্গমে তৃপ্তি না পাওয়া, এমনকি বছর ঘুরে গেলে সন্তানের মুখ না দেখার কারণ হতে পারে ডায়াবেটিস। বেশির ভাগ পুরুষের ক্ষেত্রে ডায়াবেটিসের কারণে বীর্যের ঘনত্ব ও সঙ্গমের স্থায়ীত্ব কমে যায়। তাই নিজের দাম্পত্য জীবনে এই তৃতীয় শত্রুকে নির্মুল করতে পৌঁছে যান বিশেষজ্ঞের কাছে।


Diabetes

ঘন ঘন জল খাওয়া ভালো, তবে কিছুক্ষণ অন্তর যদি মুখের ভিতরের অংশ শুকিয়ে আসে, বেশিক্ষণ কথা বলতে গেলে জিভ জড়িয়ে যায় আর জল খেতে হয়, তবে ১০০ ভাগ নিশ্চিত হয়ে যান আপনার ডায়াবেটিস আছে। এছাড়া মিনিট কয়েক অন্তর খিদে খিদে পেলে তা প্রশ্রয় না দিয়ে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

Diabetes

পরিশেষে একটাই বিষয় মনে রাখবেন, প্রতিবছর পৃথিবীতে ১০ লক্ষ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে মারা যায় শুধুমাত্র অবহেলার কারণে। অবহেলা না করে খুব সহজে নিয়মিত শরীরচর্চা এবং ওষুধ সেবন করলেই জব্দ করতে পারেন ডায়াবেটিসকে।