Date : 2019-05-21

Breaking
৩০ মে শুরু বিশ্বকাপ। আগামীকাল ইংল্যান্ডে উড়ে যাচ্ছে ভারতীয় দল।দলের সবাই ফিট। এবার বিশ্বকাপ জেতা আমাদের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ, সাংবাদিক সম্মেলনে বললেন বিরাট কোহলি।
ভোটের ফল ঘোষণার দু দিন আগে খড়গপুরে চলল গুলি। আইআইটির কাছে এলোপাথাড়ি গুলি চালাল দুষ্কৃতীরা। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত ১।
কাঁকিনাড়ায় সন্ত্রাসের প্রতিবাদের জের। কাঁকিনাড়া ২৯ নম্বর রেল গেট অবরোধ স্থানীয়দের। ট্রেন লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি। প্রায় ৩ ঘন্টা পর অবরোধ প্রত্যাহার
ভাটপাড়ায় অর্জুন সিং ও তার বাহিনী তাণ্ডব চালাচ্ছে। উত্তর ২৪ পরগণার জেলা শাসককে নালিশ মদন মিত্রের। সন্ত্রাস বন্ধ হলে ভাটপাড়ায় রাজনৈতিক ভাবে প্রতিবাদ হবে হুঁশিয়ারি মদন মিত্র ও জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের।
বুথ ফেরৎ সমীক্ষায় হতাশ হবেন না। আমাদের মনোবল ভাঙতেই এই কৌশল নেওয়া হয়েছে। সকলে সতর্ক থাকুন। দলের সদস্যদের অডিও বার্তায় নির্দেশ প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর।
একশো শতাংশ ভিভিপ্যাট ও ইভিএম গণনার আর্জি খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট। এই ধরনের আবেদনের কোন সারবত্তা নেই। কড়া জবাব সুপ্রিম কোর্টের।
রাজ্যে মোট গণনা কেন্দ্র ৫৮টি। গণনা কেন্দ্রের নিরাপত্তায় মোতায়েন ৮২ কোম্পানি আধাসেনা। কাউন্টিং অবসারভারের সংখ্যা ১৪৪ থেকে বেড়ে হল ১৫৫। ৪টি গণনা হলের দায়িত্বে ১জন অবজারভার।
ইভিএম সুরক্ষা নিয়ে উদ্বেগে বিরোধীরা। ইভিএমের নিরাপত্তা নিয়ে দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনে বিরোধীরা। ভিভিপ্যাট গণনা পদ্ধতি নিয়ে কমিশনে প্রশ্ন বিরোধীদের।
কাঞ্চনজঙ্ঘা জয় করলেন বাঙালী পর্বতারোহী শেখ সাহাবুদ্দিন। সামিট সম্পন্ন করে আজ ইছাপুরের কালিতলার বাড়িতে ফিরলেন তিনি।তার এই সাফল্যে খুশি গোটা পরিবার।
আজ দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনে যাচ্ছে বিরোধীরা। ২৩ মে ফলপ্রকাশের আগে ইভিএমের নিরাপত্তা জোরদার করার দাবি।
ফের মাধ্যমিকে কলকাতাকে ছাপিয়ে গেল অন্য জেলা। মেধাতালিকার প্রথম দশে কলকাতার মাত্র ১, অন্য জেলার ৫০ মেধাবী। যাদের মধ্যে ২১ জন ছাত্রী, ৩০ জন ছাত্র।
মাধ্যমিক ২০১৯-র ফলপ্রকাশ। ৬৯৪ পেয়ে প্রথম পূর্ব মেদিনীপুরের সৌগত দাস। যুগ্ম দ্বিতীয় আলিপুরদুয়ারের শ্রেয়সী পাল ও কোচবিহারের দেবস্মিতা সাহা। তৃতীয় ক্যামেলিয়া রায় ও ব্রতীন মণ্ডল।

দল বেঁধে ওরা প্যান্ট খুলে মেট্রোয় চড়ছেন, কিন্তু কেন?

ওয়েব ডেস্ক: কখনও ভেবে দেখেছেন, ব্যস্ত অফিস টাইমে নাকে-মুখে গুঁজে মেট্রো ধরতে ছুটছেন। টিকিটও কাটলেন। প্ল্যাটফর্মে আসতেই মেট্রো হাজির। কিন্তু দরজা খুলতেই আপনার চক্ষু চড়কগাছ।

কোনো যাত্রীরই পরনে নেই প্যান্ট। ভাবছেন এরম আবার হয় নাকি? তবে শুনলে আপনি অবাক হবেন বর্তমানে বিশ্বের প্রায় ১২টি দেশে টিউব রেল বা মেট্রো রেলে চড়লে এমন দৃশ্য খুবই স্বাভাবিক। ‘নো প্যান্টস সাবওয়ে রাইড’ নামের একটি বিশেষ উদ্যোগে সামিল হয়েছেন অনেকেই।

এই উদ্যোগের প্রধান শর্ত যাত্রীদের ট্রাউজার খুলে টিউব রেল বা মেট্রো রেলে যাত্রা করতে হবে। এই অভিনব উদ্যোগের জন্ম আজ থেকে ১৭ বছর আগে, ২০০২ সালে এই ‘নো প্যান্ট সাবওয়ে রাইড’প্রথম চালু হয়েছিল নিউ ইয়র্কে। সেখানকার একটি কমেডি পারফরম্যান্স আর্ট গ্রুপ ‘ইমপ্রুভ এভরিহয়্যার’ উদ্যোগে এই ‘নো প্যান্ট সাবওয়ে রাইড’-এর পথ চলা শুরু হয়।

সে বছর প্রায় ১৫০ জন অংশ নিয়েছিলেন ‘ইমপ্রুভ এভরিহয়্যার’-এর এই উদ্যোগে। কিন্তু এই উদ্যোগের উদ্দেশ্য কি ছিল? নিত্যযাত্রীদের দৈনন্দিন একঘেয়ে জীবনে একটু আনন্দ দিতেই তারা এই বিশেষ উদ্যোগ নেন। বর্তমানে বিশ্বের প্রায় ১২টি দেশে পালিত হয় এই ‘নো প্যান্ট সাবওয়ে রাইড’ কর্মসূচি।

সেই তালিকায় রয়েছে বার্লিন, বস্টন, প্রাগ, পোল্যান্ড, ফিলাডেলফিয়া প্রভৃতি দেশের নাম । ২০১৬ সালে এই দলে নাম লিখিয়েছে মস্কোও। তবে শুধুই মানুষকে আনন্দ দিতেই নয়, ওই ট্রাউজারগুলি দুঃস্থদের মধ্যে বিতরণও করা