Date : 2019-06-25

দেওয়াল রাখুন পরিচ্ছন্ন, ভোট পড়বে বাক্সে

ওয়েব ডেস্ক: গণতান্ত্রিক দেশে ভোট বড় বালাই।

নির্বাচন আসলেই জনসংযোগ গড়ে তুলতে মরিয়া হয়ে যায় রাজনৈতিক দলগুলি।

শহর থেকে জেলা, ভোটের আগে রাস্তার ধারে দেওয়াল লিখন আর পোস্টার দেখে ক্লান্ত হয়ে পড়ে দু চোখ।

শহরে সৌন্দর্যায়নের জন্য সবরকম ব্যবস্থা নিলেও ভোটের আগে দেওয়াল লিখন অস্বস্তিকর হয়ে উঠছে।

দেওয়াল থাকুক পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন, এমনটাই দাবি নাগরিক সমাজের একাংশের।

সমাজ এগোচ্ছে সবক্ষেত্রেই সেখানে দেওয়াল লিখনে কেন নষ্ট হবে শহরের সৌন্দর্য্য।

দেওয়াল লিখনের পরিবর্তে ব্যবহার করা হোক অন্যান্য মাধ্যম- সেই দাবি তুলেছে শহরের উত্তর থেকে দক্ষিণ প্রান্তের নাগরিক সংগঠন। তাদের বক্তব্য, শহর পরিচ্ছন্নের প্রতিশ্রুতি দিলেও ভোটের সময় দেওয়াল দখল করে প্রচার করে সব দলগুলি। এই সংস্কৃতি বন্ধের আবেদন করেছেন সাধারন মানুষ।নাগরিকদের এই মনোভাবের সঙ্গে সহমত পোষন করেছেন কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। বৃহস্পতিবার তিনি বলেন, ‘প্রচারের এখন বিকল্প অনেক মাধ্যম আছে। দেওয়াল লিখন বন্ধ হওয়াই ভালো।’ রাজ্যের পরিচ্ছন্ন শহর নিউটাউনেও ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে দেওয়াল লিখন।

নিউটাউনের বাসিন্দাদের মত দেওয়াল লিখনে জনসংযোগের থেকেও এলাকায় দৃশ্য দূষণ বাড়ে। তাদের মত, রাজনৈতিক প্রচারে দলগুলি যেমন দেওয়াল লিখনের প্রতিযোগিতায় নামে, তেমন তাদের দায়িত্ব নিয়ে এগুলো পরিষ্কার করে দেওয়া উচিত। প্রচার করার এখন বিবিধ মাধ্যম আছে, দেওয়াল লেখার বদলে সেগুলো ব্যবহারেই গুরুত্ব দেওয়া যেতে পারে। নির্বাচনী বিধি লাগু হয়েছে, দেওয়াল লিখতে গেলে সংশ্লিষ্ট বাড়ির মালিকের থেকে অনুমতি নিতে হয়। আর ভোট শেষে সেই দেওয়ালকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে দেওয়ার দায়িত্ব বর্তায় রাজনৈতিক দলগুলির উপর।