Date : 2021-05-06

লন্ডনের রাস্তায় খোশমেজাজে নীরব মোদী…

ওয়েব ডেস্ক: পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক জালিয়াতির ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই দেশ থেকে পালিয়ে বিদেশের মাটিতে গা ঢাকা দেন নীরব মোদী। বর্তমানে তার নামে রয়েছে ইন্টারপোলের রেড কর্ণার নোটিশ। সেই নীরব মোদীরই দেখা মিলল লন্ডনের রাস্তায়। লন্ডনের দৈনিক দ্যা টেলিগ্রাফ সূত্রে এমনই খবর। সংশ্লিষ্ট দৈনিকের দাবি লন্ডনের ওয়েস্ট এন্ড-এ তিন কামরার একটি বিলাসবহুল ফ্ল্যাটে বর্তমানে থাকেন তিনি। যার মাসিক ভাড়া ১৫ লক্ষ টাকারও বেশী। তবে দ্যা টেলিগ্রাফের সাংবাদিকের সঙ্গে কোনও কথা বলেননি নীরব মোদী। যাবতীয় প্রশ্নের উত্তরে বলেন, “সরি, নো কমেন্টস”।

সৌজন্যে- ট্যুইটর

দ্যা টেলিগ্রাফের ভিডিও থেকে স্পষ্ট চেহারাতেও বেশ বদল এসেছে তার। মুখে খোঁচা খোঁচা দাঁড়ি সঙ্গে পুরু গোঁফ। কথা বলার সময় নীরব মোদীর পরনে ছিল উট পাখির চামড়ার তৈরী একটি জ্যাকেট, যার দাম নাকি কমপক্ষে ৯ লক্ষ টাকা, এমনই দাবি করেছেন ঐ পত্রিকার সাংবাদিক। গত বছর জানুয়ারী মাসে পিএনবি কান্ড সামনে আসার আঁচ পেয়েই বিদেশে গা ধাকা দেন মামা-ভাগ্নে মেহুল চৌকসি ও নীরব মোদী। ১৩,৫০০ কোটি টাকার জালিয়াতির অভিযোগ তাদের বিরুদ্ধে। টেলিগ্রাফের দাবি অনুযায়ী লন্ডনের ওয়েস্ট এন্ড এলাকার সোহো তে হিরের ব্যবসাও নাকি খুলেছেন নীরব মোদী।

সৌজন্যে- দ্যা টেলিগ্রাফ

প্রতিদিন নিজের পোষা কুকুরকে সঙ্গে নিয়ে হেঁটে অফিস থেকে বাড়ি ফেরেন৷ গত বছরই এই নতুন ব্যবসাটি শুরু করেছেন নীরব৷ একটি সূত্র মারফত লন্ডনের ওই সংবাদপত্র জানতে পেরেছে, ব্রিটেনের ডিপার্টমেন্ট অফ ওয়ার্ক অ্যান্ড পেনশনে ন্যাশনাল ইনসিওরেন্স নম্বর করিয়েছেন নীরব মোদী৷ এদিকে শনিবার বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রবীশ কুমার এক সাংবাদিক সম্মেলনে জানান, সরকার জানে নীরব মোদী ব্রিটেনে রয়েছেন। তাকে দেশে ফেরানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এই বিষয়ে ব্রিটেনের কাছে আবেদন করা হয়েছে। গোটা বিষয়টি এখন ব্রিটিশ সরকারের বিবেচনাধীন।