Date : 2021-06-21

অনাদরে বঙ্কিম স্মৃতি, সমাজ বিরোধীদের দখলে পার্ক

হাওড়া: সাহিত্য সম্রাট বঙ্কিম চন্দ্র ছিলেন হাওড়ার ডেপুটি কালেক্টার।

ইংরেজ শাসিত দেশে সেসময় কর আদায় করতেন।

সেই কারণে হাওড়া অঞ্চলের বাড়িটিতেই বেশীর ভাগ সময় কাটতেন তিনি।

বঙ্কিম বাবুর সেই বাড়ি আজ পরিত্যক্ত।

রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে জীর্ণ হয়েছে সেই বাড়ি।

রাজ্যে ক্ষমতা বদলের পর বঙ্কিম চন্দ্রের স্মৃতিকে ধরে রাখার উদ্যোগ নেওয়া হয়।

ইতিমধ্যে টাউন স্কুলের কাছে অবস্থিত বঙ্কিম চন্দ্রের স্মৃতি বিজড়িত পার্কটির আধুনিকীকরন করা হয়েছিল।

সেই বাবদ সাংসদ তহবিল থেকে অর্থ বরাদ্দ করাও হয়েছিল।

কিন্তু দশ বছরের মধ্যে পার্কটির অবস্থা বেহাল হয়ে পড়েছে।

হাওড়া শহরের বহু মানুষ প্রত্যহ প্রাতঃভ্রমনে আসেন এই পার্কে।

এমনকি পার্কের মধ্যে দোলনা সহ অন্যান্য খেলার সরঞ্জামের বেহাল দশা হয়েছে।

অনুষ্ঠান বা বিয়ে বাড়ি ভাড়া দেওয়ার জন্য পার্কের অধিকাংশ জায়গায় জমেছে আবর্জনার স্তুপ।

এমনকি বেআইনি ভাবে যত্র তত্র ফেলা হয়েছে নির্মান বর্জ্য।

অপরিষ্কার পার্কে ক্রমশ আনাগোনা কমতে শুরু করেছে সাধারণ মানুষের।

পার্ক ক্রমশ বেআইনি কার্যকলাপের আখড়া হয়ে উঠেছে।

রাত বাড়লেই মদের আসর বসে সেখানে।

বেআইনি কার্য কলাপে বাধা দিলে হুমকি শুনতে হয় এমনটাই অভিযোগ করছেন এলাকার সাধারণ মানুষ।

পুরসভা থেকে শুরু করে বিভিন্ন জায়গায় নালিশ জানিয়েও মেলেনি সুরাহা।

রাত নামলে মদ্যপানের আসর বসে পার্কে।

চলতে থাকে অসামাজিক কাজকর্ম।

বিষয়টি নিয়ে পুরকমিশনার বিজন কৃষ্ণ জানান, “খোঁজ খবর নিয়ে মন্তব্য করবো।”

নির্বাচনী আদর্শ আচরন বিধি জারি হওয়ার পর কোন রকম প্রকল্প ঘোষণা করতে পারে না সরকার।

তাই পার্কের উন্নয়নের স্বার্থে ঘোষণাও করতে পারবে না সরকার।

লোকসভা ভোটের মুখে পার্কের বেহাল দশা মানুষের মধ্যে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে বলেই মনে করছে স্থানীয় প্রশাসন।