Date : 2020-11-01

“দিল তো বাচ্চা হ্যায় জী…” সংসদেই চকোলেটে কামড় বসালেন প্রধানমন্ত্রী

ওয়েব ডেস্ক: পার্লামেন্টে তখন টান টান উত্তেজনা। চলছে ভোটাভুটি পর্ব।

এরই মধ্যে লুকিয়ে লুকিয়ে তিনি কামড় বসিয়েছিলেন চকোলেটের বারে।

তিনি কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডু। ভেবেছিলেন চুপিসাড়ে চকোলেট সাবাড় করে নিতে পারবেন।

কিন্তু বিধি বাম! সবার নজর এড়িয়ে গেলেও কনজার্ভেটিভ সাংসদ স্কট রিডের নজর তাকে রেহাই দেয়নি। দেরি করেননি তিনি, সোজা নালিশ করেন স্পিকারের কাছে। প্রধানমন্ত্রী বার্গার খাচ্ছেন।

আইনত পার্লামেন্ট হাউসে বসে লুকিয়ে বার্গার বা অন্যকিছু খাওয়া নিয়মবিরুদ্ধ। এবার উপায়?

ভরা পার্লামেন্টে সর্বসমক্ষে দাঁড়িয়ে ক্ষমা চাইলেন, সঙ্গে জানালেন বার্গার নয় চকোলেট খাচ্ছিলেন তিনি।

স্পিকারের উদ্দেশ্য বললেন, ‘আসলে আমার কাছে একটা চকোলেট বার ছিল। তাতেই কামড় বসিয়েছি। এ জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী।’ তবে তাঁর খিদে পেয়েছিল নাকি পকেটে থাকা চকোলেটের লোভ সামলাতে পারেননি তা অবশ্য জানা যায়নি। প্রধানমন্ত্রী হলেও দিল তো বাচ্চা হ্যায় জী…