Date : 2019-05-21

Breaking
৩০ মে শুরু বিশ্বকাপ। আগামীকাল ইংল্যান্ডে উড়ে যাচ্ছে ভারতীয় দল।দলের সবাই ফিট। এবার বিশ্বকাপ জেতা আমাদের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ, সাংবাদিক সম্মেলনে বললেন বিরাট কোহলি।
ভোটের ফল ঘোষণার দু দিন আগে খড়গপুরে চলল গুলি। আইআইটির কাছে এলোপাথাড়ি গুলি চালাল দুষ্কৃতীরা। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত ১।
কাঁকিনাড়ায় সন্ত্রাসের প্রতিবাদের জের। কাঁকিনাড়া ২৯ নম্বর রেল গেট অবরোধ স্থানীয়দের। ট্রেন লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি। প্রায় ৩ ঘন্টা পর অবরোধ প্রত্যাহার
ভাটপাড়ায় অর্জুন সিং ও তার বাহিনী তাণ্ডব চালাচ্ছে। উত্তর ২৪ পরগণার জেলা শাসককে নালিশ মদন মিত্রের। সন্ত্রাস বন্ধ হলে ভাটপাড়ায় রাজনৈতিক ভাবে প্রতিবাদ হবে হুঁশিয়ারি মদন মিত্র ও জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের।
বুথ ফেরৎ সমীক্ষায় হতাশ হবেন না। আমাদের মনোবল ভাঙতেই এই কৌশল নেওয়া হয়েছে। সকলে সতর্ক থাকুন। দলের সদস্যদের অডিও বার্তায় নির্দেশ প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর।
একশো শতাংশ ভিভিপ্যাট ও ইভিএম গণনার আর্জি খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট। এই ধরনের আবেদনের কোন সারবত্তা নেই। কড়া জবাব সুপ্রিম কোর্টের।
রাজ্যে মোট গণনা কেন্দ্র ৫৮টি। গণনা কেন্দ্রের নিরাপত্তায় মোতায়েন ৮২ কোম্পানি আধাসেনা। কাউন্টিং অবসারভারের সংখ্যা ১৪৪ থেকে বেড়ে হল ১৫৫। ৪টি গণনা হলের দায়িত্বে ১জন অবজারভার।
ইভিএম সুরক্ষা নিয়ে উদ্বেগে বিরোধীরা। ইভিএমের নিরাপত্তা নিয়ে দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনে বিরোধীরা। ভিভিপ্যাট গণনা পদ্ধতি নিয়ে কমিশনে প্রশ্ন বিরোধীদের।
কাঞ্চনজঙ্ঘা জয় করলেন বাঙালী পর্বতারোহী শেখ সাহাবুদ্দিন। সামিট সম্পন্ন করে আজ ইছাপুরের কালিতলার বাড়িতে ফিরলেন তিনি।তার এই সাফল্যে খুশি গোটা পরিবার।
আজ দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনে যাচ্ছে বিরোধীরা। ২৩ মে ফলপ্রকাশের আগে ইভিএমের নিরাপত্তা জোরদার করার দাবি।
ফের মাধ্যমিকে কলকাতাকে ছাপিয়ে গেল অন্য জেলা। মেধাতালিকার প্রথম দশে কলকাতার মাত্র ১, অন্য জেলার ৫০ মেধাবী। যাদের মধ্যে ২১ জন ছাত্রী, ৩০ জন ছাত্র।
মাধ্যমিক ২০১৯-র ফলপ্রকাশ। ৬৯৪ পেয়ে প্রথম পূর্ব মেদিনীপুরের সৌগত দাস। যুগ্ম দ্বিতীয় আলিপুরদুয়ারের শ্রেয়সী পাল ও কোচবিহারের দেবস্মিতা সাহা। তৃতীয় ক্যামেলিয়া রায় ও ব্রতীন মণ্ডল।

ব্যবসায় রেকর্ড পতন টাটা মোটরসের…

ওয়েব ডেস্ক: ফের মুখ থুবড়ে পড়ল টাটা মোটরস। গত কয়েকমাস ধরেই টাটা মোটরসের কমার্শিয়াল এবং প্যাসেঞ্জার গাড়ির ব্যবসা বেশ নিম্নমুখী। এবার একেবারে ২০ শতাংশ ব্যবসা করে গিয়েছে, জানানো হল খোদ সংস্থার পক্ষ থেকে।

এপ্রিল মাসে টাটা মোটরস কমার্শিয়াল এবং প্যাসেঞ্জার গাড়ির ব্যবসা ২০ শতাংশ কমে গিয়ে ৪২,৫৭৭ ইউনিটে পৌঁছে গেছে। গত বছর টাটা মোটরসের ব্যবসার পরিমাণ ছিল ৫৩,৫১১ ইউনিট। পাশাপাশি মুম্বাইয়ের এই গাড়ি এবং ট্রাক প্রস্তুতকারক সংস্থাটির পক্ষ থেকে অন্য একটি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, গত মাসে তাদের কমার্শিয়াল ভেহিকলস বিক্রির পরিসংখ্যানটি ছিল ২৯,৮৮৩ ইউনিট।

২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে যা ছিল ৩৬,২৭৬ ইউনিট। তার থেকে ১৮ শতাংশ কমে গিয়েছে বিক্রি। শুধু এই দুই বিভাগের গাড়িই নয়, ব্যবসা কমেছে মাঝারি এবং ভারি গাড়ির ক্ষেত্রেও। গত বছর যেখানে এপ্রিল মাসে বিক্রি ছিল ১৪,০২৮ ইউনিট, সেখানে এই বছরের এপ্রিল মাসে ওই ব্যবসা ৩৩ শতাংশ কমে গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৯,৪০৩ ইউনিটে।

গত মাসে যাত্রীবাহী গাড়ির বিক্রি ২৬ শতাংশ কমে গিয়ে হয়েছে ১২, ৬৯৪ ইউনিট। সবমিলিয়ে টাটা মোটরসের সব ধরণের গাড়ির ক্ষেত্রেই বেশ খানিকটা মুখ থুবড়ে পড়েছে ব্যবসা।