Date : 2019-12-15

ব্যাগ ভর্তি কোটি টাকা! পুলিশের জালে দিলীপের আপ্ত সহায়ক

আসানসোল: পর পর ছয় দফা নির্বাচন শেষ হয়েছে রাজ্যে। দ্বিতীয় দফা নির্বাচনের শুরু থেকেই বিক্ষিপ্ত অশান্তি ও সংঘর্ষের মধ্যে দিয়েই এগিয়েছে নির্বাচন প্রক্রিয়া। লোকসভা নির্বাচনকে শান্তিপূর্ণ করার লক্ষ্যে তৃতীয় দফা নির্বাচনের পর থেকেই সব রকম তৎপরতা বজায় রেখেছিল নির্বাচন কমিশন। সপ্তম দফা নির্বাচনের মুখেই ফের টাকা দিয়ে ভোটার প্রভাবিত করার ষড়যন্ত্র সামনে এল।

আসানসোল স্টেশন চত্বর থেকে অবৈধ ভাবে টাকা নিয়ে যাওয়ার সময় রেল পুলিশের তৎপরতায় হাতে নাতে ধরা পড়লেন ২ ব্যক্তি। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে নগদ ১ কোটি টাকা। পুলিশ সূত্রের খবর, রবিবার সন্ধ্যায় আসানসোল স্টেশন চত্বরে সন্দেহজনক ভাবে দুজন যুবককে ঘুরতে দেখা যায়। তাদের সঙ্গে ছিল একটি ব্যাগ। সন্দেহ বাড়তে থাকায় দুই যুবকের পিছু নেয় আসানসোল জিআরপি।

স্টেশনে ওভারব্রিজের উপর ওই দুই যুবককে আটক করে ফেলে রেল পুলিশ। সেই সঙ্গে বাজেয়াপ্ত করা হয় ব্যাগটি। তল্লাশি করে ব্যাগ থেকে নগদ ১ কোটি টাকা উদ্ধার হয়। টাকা উদ্ধারের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় আয়কর দফতরের আধিকারিকরা। জেরার মুখে ওই দুই যুবক জানায়, তারা বিজেপি কর্মী। পার্টির কাজেই টাকা নিয়ে কলকাতা যাচ্ছিলেন তারা। অভিযুক্ত যুবকদের গ্রেফতার করে আরপিএফ।

উল্লেখ্য, এদিন বাঁকুড়া ও পুরুলিয়া কেন্দ্রে ভোট ছিল। তবে এত টাকা কি ভোটে ব্যবহারের জন্য নিয়ে যাচ্ছিলেন তারা? জেরার মুখে উঠে এসেছে আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য, ঘটনায় অভিযুক্ত যুবক গৌতম চট্টোপাধ্যায় রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের আপ্ত সহায়ক। গ্রেফতার হওয়া অপর যুবকের নাম লক্ষ্ণীকান্ত সাউ। তার বাড়ি দিল্লিতে। এমনকি বহিরাগত এনে টাকা দিয়ে ভোট করানোর ঘটনায় এরা জড়িত কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অভিযুক্তদের বয়ান অনুযায়ী তারা টাকা নিয়ে কলকাতায় আসছিলেন। শেষ দফা ভোটে কি তবে কলকাতায় টাকা দিয়ে ভোট করানোর কৌশল নেওয়া হয়েছিল? ঘটনার তদন্ত করতে মরিয়া প্রশাসন।