Date : 2021-12-02

কেরালায় স্কুলে বসানো হচ্ছে স্যানিটারি ন্যাপকিনের ভেন্ডিং মেশিন

ওয়েব ডেস্ক:  মেয়েদের স্বাস্থ্য নিয়ে সরকার থেকে নানা পরিকল্পনা হলেও তার বাস্তব রূপায়ণ অনেক ক্ষেত্রেই হয়ে ওঠেনি। সময় বদলেছে, এখন দেশ এগোচ্ছে। এমন অনেক বিষয় নিয়ে আজকাল ভাবা হয়েছে যেগুলো নিয়ে ভাবা তো দূরেরই কথা। বরং বেশিরভাগ সময়ই এড়িয়ে যাওয়া হত।

তবে সেইসব দিন এখন বদলেছে। তার প্রমাণও মিলছে প্রতি মুহুর্তেই। ভারতে প্রথমবার কেরালায় উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলিতে স্যানিটারি ন্যাপকিনের মেশিন রাখা বাধ্যতামূলক করা হল। গরমের ছুটির পর থেকেই এই ভেন্ডিং মেশিন রাখা হবে বলে জানাল কেরালা সরকার। কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন বলেছেন, মেয়েদের মেনেস্ট্রুয়াল হাইজিনের জন্য এবার ভাবার সময় এসেছে।

বিদ্যালয়ে মেয়েদের জন্য একটা স্বাস্থ্যকর পরিবশ গড়ে তোলাটা খুবই প্রয়োজন। তাই এই পরিবেশবন্ধু স্যানিটারি ন্যাপকিনগুলির ব্যবস্থা করা হয়েছে। এবং শুধু তাই নয়। এই যোজনাটির জন্য পরের বছর পর্যন্ত প্রায় ৩০ কোটি টাকা খরচ হবে বলে জানিয়েছে সরকারের। বিদ্যালয়ে যতজন ছাত্রী আছে, তাদের সংখ্যা হিসেব করেই রাখা হবে স্যানিটারি ন্যাপকিনগুলি।

এই পরিকল্পনাটি সরকারের ‘শি প্যাড’ যোজনার একটি অংশ। শুধু এইটাই নয়, সরকার থেকে স্কুলে জলের ব্যবস্থা থেকে শুরু করে ছেলে ও মেয়েদের পৃথক শৌচালয়ও বানানো হয়েছে। কেরালাতে প্রায় ১৮৪৫টি উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয় আছে। যেগুলিতে এই যোজনা শুরু করা হচ্ছে।