Date : 2019-06-27

লোকসভা নির্বাচন ২০১৯: Live UPDATE

ওয়েব ডেস্ক: শুরু হয়ে গিয়েছে কাউন্টডাউন। সকাল আটটা থেকে শুরু হল ভোট গণনা পর্ব। রাজ্যে কোন দলের পাল্লা ভারী। হেভিওয়েট প্রার্থীরা এগিয়ে কত ভোটে? রাজনীতির মঞ্চে নবাগতদের মার্কশিটই বা কী কথা বলছে? জানুন প্রতি মুহূর্তের সব আপডেট। 

একনজরে দেখে নিন ভোটের ফলাফল… 

ঝাড়গ্রাম লোকসভায় ৬২৬৯ ভোটে এগিয়ে বিজেপি প্রার্থী কুনার হেমব্রম। 
বিজেপির কুনার হেমব্রম-২২৫৯১ 
তৃণমূলের বীরবাহা সরেন-১৬৩২২ 

তৃতীয় রাউন্ড গণনার শেষে যাদবপুর কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী ৫৪২৩ ভোটে এগিয়ে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বিজেপির অনুপম হাজরা, তৃতীয়তে বামপ্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। 

মথুরাপুর কেন্দ্রে ২০,০০০ ভোটে এগিয়ে তৃণমূলের চৌধুরী মোহন জাটুয়া। 

দ্বিতীয় রাউন্ডে ঘাটালে ৫৬০ ভোটে এগিয়ে বিজেপির ভারতী ঘোষ। 

ডায়মন্ড হারবার কেন্দ্রে তৃতীয় রাউন্ডে ১৭৭০০ভোটে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এগিয়ে। 

কাঁথি লোকসভা কেন্দ্র 
দ্বিতীয় রাউন্ড গণনার শেষে… 
শিশির অধিকারী (TMC) ২৭৯৯৮ 
দেবাশিস সামন্ত (BJP) ২৫৪৩৩ 
পরিতোষ পট্টনায়ক (CPM) ২২৬০ 
দীপক দাস (INC) ৫৭৮ 

প্রথম রাউন্ডের শেষে আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির জন বারলা ১৭৯৩৫ ভোটে এগিয়ে। 

মেদিনীপুরে এগিয়ে বিজেপির দিলীপ ঘোষ। 

বালুরঘাটে এগিয়ে তৃণমূলের অর্পিতা ঘোষ। 

বনগাঁ কেন্দ্রে তৃতীয় রাউন্ডেপ শেষে ৭৭০৯ভোটে এগিয়ে বিজেপির শান্তনু ঠাকুর। 

বিজেপির অর্জুমন সিং এগিয়ে ১১০০ ভোটে, তাঁর ছেলে পবন সিং এগিয়ে ২৭০০ ভোটে। 

হাওড়ায় ৬০০ ভোটে এগিয়ে তৃণমূলের প্রসূন বন্দ্যোপাধ্য়ায়। 

হুগলিতে ৮০০০ ভোটে এগিয়ে বিজেপির লকেট চট্টোপাধ্যায়। 

বারাকপুরে এগিয়ে বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং। পিছিয়ে তৃণমূলের দীনেশ ত্রিবেদী। 

জয়নগরে এগিয়ে তৃণমূলের প্রতিমা মণ্ডল। 

বাঁকুড়ায় ৩০০০ হাজার ভোটে পিছিয়ে সুব্রত মুখোপাধ্যায়। 

ঝাড়গ্রাম লোকসভায় ২৫১১ ভোটে এগিয়ে বিজেপি। 

ঘাটালে এগিয়ে বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষ। 

প্রথম রাউন্ড শেষে তৃণমূল প্রার্থী শিশির অধিকারী ১২২৮ ভোটে এগিয়ে। 

বাড়ছে বাবুলের লিড। দলীয় তাঁবুতে আর বসলেন না মুনমুন সেন। ফিরলেন হোটেলে। 

কোচবিহারে এগিয়ে তৃণমূলের পরেশচন্দ্র অধিকারী। 

উলুবেড়িয়ায় তৃণমূলের সাজদা আহমেদ এগিয়ে। 

কলকাতা উত্তরে এগিয়ে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। 

বনগাঁয় এগিয়ে শান্তনু ঠাকুর। 

বিজেপি প্রার্থী এসএস আলুওয়ালিয়া এগিয়ে ১৮০০ ভোটে। 

প্রথম রাউন্ডের শেষে ৫ হাজারের বেশি ভোটে এগিয়ে আছে শতাব্দী রায়। 

প্রথম রাউন্ড গণনার শেষে বালুরঘাট 
তৃণমূল – ৩১৬৭ 
বিজেপি- ৮৯৫৪ 
আরএসপি-১৬৪০ 

রায়গঞ্জে এগিয়ে বিজেপির দেবশ্রী চৌধুরী। 

ডায়মন্ড হারবারে পিছিয়ে তৃণমূলের অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এগিয়ে বিজেপির নীলাঞ্জন রায়। 

দার্জিলিঙে এগিয়ে বিজেপি প্রার্থী রাজু বিস্তা। 

কলকাতা দক্ষিণে এগিয়ে তৃণমূলের মালা রায়। 

বসিরহাটে এগিয়ে তৃণমূলের নুসরত জাহান। 

যাদবপুরে এগিয়ে তৃণমূলের মিমি চক্রবর্তী। 

কোচবিহারে প্রথম রাউন্ডের শেষে বিজেপির এগিয়ে ১২২৫ ভোটে। 

কলকাতা উত্তরে এগিয়ে তৃণমূলের সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। 

বিষ্ণুপুরে এগিয়ে তৃণমূলের শ্যামল সাঁতরা।

মালদা উত্তরে এগিয়ে তৃণমূলের মৌসম বেনজির নূর। 

পোস্টাল ব্যালট গননায় ১১০০ ভোটে এগিয়ে বিজেপি প্রার্থী জন বারলা। 

পুরুলিয়ায় এগিয়ে তৃণমূলের মৃগাঙ্ক মাহাত। 

জঙ্গিপুরে এগিয়ে তৃণমূলের খলিলুল রহমান। পিছিয়ে কংগ্রেসের অভিজিত্‍‌ বন্দ্যোপাধ্যায়। 

৩৫০০ ভোটে এগিয়ে বাবুল সুপ্রিয়। 

শ্রীরামপুর কেন্দ্রের জগতবল্লভপুরে প্রথম রাউন্ডে ৯০০ ভোটে এগিয়ে কল্যণশ্রীরামপুর কেন্দ্রের জগতবল্লভপুরে প্রথম রাউন্ডে ৯০০ ভোটে এগিয়ে কল্যণ বন্দ্যোপাধ্যায়। 

হুগলিতে এগিয়ে বিজেপির লকেট চট্টোপাধ্যায়। 

হাওড়া গভ. ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট শিবপুর আইআইইএসটি ক্যাম্পাসে ২৫ হাওড়া লোকসভা কেন্দ্রের গণনা এখনও শুরু হয়নি। গণনা কেন্দ্র ঘরগুলো ছোট এবং প্রচণ্ড গরমের জন্য গণনা শুরু হতে দেরি হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। 

বালুরঘাটে এগিয়ে বিজেপির সুকান্ত মজুমদার। 

বারাসতে এগিয়ে তৃণমূলের কাকলি ঘোষ দস্তিদার। 

মথুরাপুরে এগিয়ে চৌধুরী মোহন জাটুয়া। 

কৃষ্ণনগরে এগিয়ে বিজেপির কল্যাণ চৌবে। 

তমলুকে এগিয়ে দিব্যেন্দু অধিকারী। 

মুর্শিদাবাদে এগিয়ে আবু তাহের। 

মালদহ দক্ষিণে এগিয়ে কংগ্রেস প্রার্থী আবু হাসেম খান চৌধুরি। 

আসানসোলে ২২০০ ভোটে এগিয়ে বিজেপির বাবুল সুপ্রিয়। 

ঘাটালে এগিয়ে তৃণমূলের দেব। হাওড়ায় এগিয়ে তৃণমূলের প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। 

বহরমপুরে এগিয়ে কংগ্রেস প্রার্থী অধীর চৌধুরী। 

বর্ধমান দুর্গাপুরে এগিয়ে তৃণমূলের মমতাজ-সংঘমিত্রা। 

বর্ধমান পূর্বে এগিয়ে তৃণমূল সুনীল মণ্ডল। 

বোলপুরে এগিয়ে তৃণমূলের অসিত মাল। 

বীরভূমে এগিয়ে তৃণমূলের শতাব্দী রায়। 

দার্জিলিংয়ে পোস্টাল ব্যালট গণনায় এগিয়ে বিজেপি। জলপাইগুড়িতে এগিয়ে তৃণমূল। 

পোস্টাল ব্যালটে এগিয়ে আলিপুরদুয়ারের বিজেপি প্রার্থী জন বার্লা। 

শুরু হয়ে গেল ভোটগণনা। গোনা হচ্ছে পোস্টাল ব্যালট। 

প্রথমে গোনা হবে পোস্টাল ব্যালট। পরে ইভিএম গোনা শুরু হবে। 

গণনাকেন্দ্রে থেকে ১০০ মিটারের মধ্যে ১৪৪ ধারা জারি। ১০০ মিটারের বাইরে থাকবে রাজ্য পুলিশ।