Date : 2021-04-15

গ্লাভস বিতর্কে ধোনির পাশে বিসিসিআই…

ওয়েব ডেস্ক: ভারতীয় সেনা বাহিনীর প্রতি মাহির শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা কারও অজানা নয়। ভারতীয় সেনার তরফে টেরিটোরিয়াল আর্মির লেফটেন্যান্ট কর্নেলের বিশেষ সাম্মানিক পদ দেওয়া হয়েছে তাঁকে।

এমনকি রাষ্ট্রপতির হাত থেকে পদ্মভূষণ সম্মান গ্রহণ করার সময় ধোনি ভারতীয় সেনার উর্দি পরেছিলেন। এবার বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতীয় সেনার আত্মবলিদানকে তুলে ধরতে এমন অভিনব উদ্যোগ যে তিনি নেবেন তা ভাবতে পারেননি তাঁর অনুরাগীরাও।

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ধোনির হাতের গ্লাভস নজর এড়িয়ে যায়নি সংবাদমাধ্যমের। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তিনি খেলতে নেমে তার গ্লাভসে ভারতীয় সেনাদের আত্মবলিদান স্বরূপ “রেজিমেন্টাল ইনসিগনিয়া” চিহ্নটি ব্যবহার করেছেন। শহীদ জওয়ানদের শ্রদ্ধা জানাতে ওই চিহ্নটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এই ঘটনা জনসমক্ষে আসতেই আইসিসি-র রোষের মুখে পড়ে যান মাহি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থার তরফে বিসিসিআইকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়, ওই গ্লাভস পরে মাঠে খেলতে নামতে পারবেন না ধোনি।

এই নিষেধজ্ঞা জারি হতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় ওঠে।পরের ম্যাচেও মাহির অনুরাগীরা তাঁকে ওই গ্লাভস পরেই খেলতে নামার অনুরোধ করেন। বুধবার সাউদাম্পটনের রোজ বোলে দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচের সময় ধোনির গ্লাভসে জ্বলজ্বল করছিল বলিদান চিহ্ন, ছবিটি ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। পুলওয়ামাকাণ্ডের পর রাঁচিতে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টিম ইন্ডিয়া শহীদ সেনাদের শ্রদ্ধা জানাতে সেনাদের টুপি পরে খেলতে নেমেছিল।

পুলওয়ামায় শহীদ জওয়ানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছিল বিসিসিআই। যদিও ভারতীয় নেটিজেনরা তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ। ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থার নিয়ম অনুযায়ী, ম্যাচের মধ্যে কোনওভাবেই রাজনৈতিক, ধর্মীয় বা জাতিগত বার্তা বা চিহ্ন প্রদর্শন করা যায় না। তবে বিশিষ্টজনদের মতামত অনুযায়ী এই ঘটনা কোন ভাবেই আইসিসির নিয়ম ভঙ্গ করছে না। এমনকি বিসিসিআই-ও এই ঘটনায় ধোনির পাশেই দাঁড়িয়েছে।