Date : 2021-04-21

আরও ১.২ লক্ষ মানুষের নাম বাদ পড়ল অসমের নাগরিক পঞ্জীতে

ওয়েব ডেস্ক: জাতীয় নাগরিক পঞ্জী নিয়ে অসমে আরও উদ্বেগ বাড়ল। জাতীয় নাররিক পঞ্জী থেকে বাদপড়াদের জন্য অতিরিক্ত আরও একটি তালিকা প্রকাশ করল অসম সরকার। আর সেই তালিকায় প্রকাশিত হল অতিরিক্ত ১,০২,৪৬২ জনের নাম। গতবছর নাগরিক পঞ্জীর খসড়া তালিকায় এদের নাম ছিল কিন্তু এবার তাদের নাম যুক্ত হল নাগরিক পঞ্জী থেকে বাদপড়াদের তালিকায়। তবে গত বছর তালিকায় নাম তোলার জন্য আবেদন করেছিলেন ৩.২৯ কোটি মানুষ। এদের মধ্যে থেকে ২.৯ কোটি মানুষের নাম নাগরিক পঞ্জীতে নথিভুক্ত করা হয়। ফলে বাদ পড়ে যান কয়েক লাখ মানুষ। বুধবার প্রকাশিত হয় বাদপড়া মানুষের তালিকা।

এটি প্রকাশিত হওয়ার পরেই দেশ জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়ে যায়। বিরোধীদের অভিযোগ ছিল বাংলাদেশী বিতাড়নের নামে বৈধ নাগরিকদের নাম বাদ দিচ্ছে সরকার। কিন্তু এই বিষয়ে প্রথম থেকেই কড়া অবস্থানে ছিল কেন্দ্রীয় সরকার।

কেন্দ্রের তরফে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হয় নাগরিক পঞ্জী তালিকায় অযোগ্যদের কিছুতেই রাখা যাবে না। বিশেষ করে বৈধ নথিপত্র না থাকলে কোনভাবেই তাদের নাগরিক পঞ্জীতে রাখা সম্ভব নয়।

প্রসঙ্গত, এর আগে ৩.২৯ কোটি আবেদনকারীর মধ্যে ২.৯ কোটি মানুষের নাম ছিল নাগরিক পঞ্জীতে সেইবার প্রায় ৪০ লক্ষ মানুষের নাম বাদ পড়েছিল নাগরিক পঞ্জী থেকে এবার নতুন খসড়ায় আরও ১ লক্ষ ২ হাজার ৪৬২ জনের নাম বাদ পড়ল।

নাগরিকপঞ্জী-র আধিকারিকের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ২০০৩ সালের নাগরিক আইনের ৫ নম্বর ধারা অনুযায়ী নাগরিকপঞ্জী তৈরি করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, সুপ্রিম কোর্টের নজরদারিতে তৈরি হচ্ছে নাগরিকপঞ্জী। এর চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হবে ৩১ জুলাই।

নাগরিক পঞ্জী তালিকা থেকে যাদের নাম বাদ গেছে তাদের বাড়ির ঠিকানা দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে অসম সরকারের তরফে।