Date : 2019-07-21

আদিত্য পাঞ্চোলির বিরুদ্ধে অভিনেত্রীকে অজ্ঞান করে ধর্ষণ করার অভিযোগ…

ওয়েব ডেস্ক: বেশ কিছুদিন যাবৎ শিরোনামেই আছেন আদিত্য পাঞ্চোলি। প্রথমে কঙ্গনা রানাওয়াতের তরফ থেকে ওনার বিরুদ্ধে এসেছিল জোর করে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের অভিযোগ।

তবে এই দ্বিতীয়বারের অভিযোগটি আরও সাংঘাতিক।

২০০৪ সাল থেকে প্রায় ২০০৭ পর্যন্ত একটি মেয়েকে মানসিক ও শারীরিকভাবে অত্যাচার করেছে। মেয়েটি তার নাম এখনও প্রকাশ্যে আনতে চায় না। সে এখন বলিউডের একটি নাম।

তার বয়ান অনেকটা এরকম, ২০০৪ সালে আদিত্য পাঞ্চোলির সঙ্গে একটি পার্টিতে যায় সে। তখন ওনার বয়স ছিল ৩৮। সেখানে তাকে প্রথমে গ্লাসে করে কিছু একটা খেতে দেয় আদিত্য নিজেই।

সেটা খাওয়ার কিছুক্ষণ পর থেকেই মাথাটা কেমন যেন ভার হতে থাকে। বাড়ি ছেড়ে দেওয়ার নামে তাকে নিজের গাড়িতে ওঠায় পাঞ্চোলি। মাঝ রাস্তায় হঠাৎ একটি শুনশান জায়গায় গাড়ি থামিয়ে তার উপর জোরজবরদস্তি করার চেষ্টা করে। শুধু তাই নয় বেশ কয়েকটি ছবিও তোলে মেয়েটির।

দিনের পর দিন সেই ছবি নিয়ে ব্ল্যাকমেল করতে থাকে। সেই সময় মুম্বাই শহরে একা ছিল মেয়েটি। আর সেই সুযোগটাই নেন আদিত্য পাঞ্চোলি। পরে মেয়েটি তার মাসির সঙ্গে থাকতে শুরু করে। কিন্তু সেখানেও গিয়ে হাজির হতেন অভিনেতা। ও জোর করে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করতেন। ২০০৪-২০০৬ এর মধ্যে এই ঘটনাগুলি ঘটে।

পরে ২০০৭ সালে মেয়েটি একটি ফ্ল্যাটে থাকতে শুরু করেন। সেখানে বন্ধুদের নিয়ে যখন তখন হাজির হত আদিত্য পাঞ্চোলি। শুধু তাই নয়, ফ্ল্যাটের নকল চাবিও বানিয়ে নিয়েছিলেন তিনি। যখন তখন এসে ধর্ষণ করে মেয়েটিকে ঘরেই ফেলে রেখে দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করে চলে যেতেন।