Date : 2021-10-26

“বুধবার এসে ১টাকা নিয়ে যাবেন”, শেষ ফোনে হরিশ সালভেকে আমন্ত্রণ সুষমার….

ওয়েব ডেস্ক: হয়েতো নিজেও জানতেন না আর কিছুক্ষণ পর টিভির পর্দায় তাঁর সাদা-কালো ছবি ভেসে উঠবে। শোক জ্ঞাপন করবে গোটা দেশ। নাহ্, এতকিছু ভেবে দেখেননি। নিজের কর্ম আর দ্বায়িত্ববোধে ছিলেন অবিচল। ঘন্টাখানেক আগেও তাঁর সঙ্গে কথা হয়েছিল আন্তর্জাতিক আদালতের ভারতীয় আইনজীবী হরিশ সালভের। বুধবার প্রাক্তন বিদেশ মন্ত্রীর বাড়ি আমন্ত্রণ ছিল চায়ের আড্ডায়, কিন্তু ২৪ ঘন্টা আগেই অতীত হয়ে গেল সব। প্রিয়তম মানুষটির মৃত্যুর খবর পেয়ে প্রথমে বিশ্বাস করতে পারেননি হরিশ সালভে।

এদিন সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানান, ফোনের ওপার থেকে নরম কন্ঠে সুষমা জি জানিয়ে ছিলেন, ‘‘বুধবার এসে কুলভূষণ মামলার পারিশ্রমিক ১ টাকা নিয়ে যাবেন।’’ তার ঠিক কয়েক ঘন্টা পরেই তিনি আর নেই এই কথাটা যেন বিশ্বাস করেই উঠতে পারছিলেন না হরিশ সালভে। সত্যিই বড় নিষ্ঠুর নিয়তি। এদিন প্রথম প্রতিক্রিয়া দিয়ে তিনি বলেন, ‘‘রাত ৮টা ৫০ মিনিটেও আমি ওনার সঙ্গে কথা বলেছি৷ আমাদের মধ্যে একটা হৃদয়স্পর্শী কথোপকথন হয়।

আমাকে বলেন, আসুন, আমার সঙ্গে দেখা করুন। মামলা জেতার জন্য আপনার প্রাপ্য এক টাকা দেব। আমি বলি, মূল্যবান পারিশ্রমিক গ্রহণ করতে অবশ্যই যাব। উনি বলেন, আগামিকাল ৬টার সময় আসুন।’’ কুলভূষণ মামলার পারিশ্রমিক ছাড়াও এদিন সেই সংক্রান্তে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করার কথা ছিল তাঁর। এখানেই শেষ নয়, কাশ্মীরে ৩৭০ ধারার অবলুপ্তি নিয়ে সন্ধে ৭ টা ৩০ নাগাদ প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইটও করেন প্রাক্তন বিদেশ মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

প্রধানমন্ত্রীকে নরেন্দ্র মোদীকে তিনি ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন কাশ্মীরের বিষয় নিয়ে এই সিদ্ধান্তের জন্য তিনি দীর্ঘদিন অপেক্ষা করেছিলেন। এই শেষ টুইট, এরপর রাত ৯ টা নাগাদ হঠাৎ-ই বুকে ব্যাথা অনুভব করেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় দিল্লির এইমস হাসপাতালে। সেখানেই রাত ১০ টা ৫৫ নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সুষমা স্বরাজ।

আরও পড়ুন : উত্তরাখন্ডে বাস দুর্ঘটনায় মৃত ৯ শিশু

মাত্র কয়েক ঘন্টার মধ্যে এমন মৃত্যু সংবাদে গভীর ভাবে শোকাহত হয় রাজনৈতিক মহল। খবর ছড়িয়ে পড়তেই একে একে রাজনৈতিক নেতৃত্বরা ভিড় করতে শুরু করেন। আজ বেলা ৩টে -এ পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে দিল্লির লোধি রোডের সমাধিক্ষেত্রে।