Date : 2024-02-21

প্রতিপদের সকালেই হাজির “বর্ষণাসুর”, পুজোর দিনগুলি নিয়ে বাড়ছে আশঙ্কা….

কলকাতা: পূর্বাভাস সত্যি হয়েছে, মহালয়ার সকাল থেকেই শহরের পিছু নিয়েছে বৃষ্টি। আজ প্রতিপদ ও নবরাত্রীর প্রথম দিন। ভোর থেকেই অন্ধকার করে মুষলধারে বৃষ্টি নেমেছে শহরজুড়ে। রবিবার ভোর রাত থেকে এক নাগাড়ে বৃষ্টি চলছে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতেও। হাওয়া অফিসের বার্তায় রয়েছে অশনি সংকেত। সোমবার পর্যন্ত টানা বৃষ্টি চললেও মঙ্গলবার ফের একটি নিম্নচাপ সৃষ্টির সম্ভবনা রয়েছে। এই নিম্নচাপটি তৈরি হলে পুজোয় উজ্বল দিন দেখার সম্ভবনা খুবই কম। রবিবার ভোরের বৃষ্টিতে কার্যত জলের নীচে চলে গেছে গোটা শহর। বেলার দিকে বৃষ্টি কিছুটা কমলেও শহরের বিভিন্ন প্রান্ত জলবন্দি হয়ে রয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বেশ কিছু প্যান্ডেলের কাজ।

শুধু দক্ষিণবঙ্গ নয় উত্তরবঙ্গের বেশ কিছু জেলাতেও প্রবল বর্ষণের পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর হাওয়া অফিস। এদিকে পুজোর আগে আজ শেষ রবিবার। কেনাকাটার জন্য আজই শেষ ছুটির দিন। দুপুরের পর থেকে ফের বৃষ্টি শুরু হলে পণ্ড হতে পারে শেষদিনের কেনাকাটা। আবহাওয়া দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে আগামী ৭২ ঘন্টা নাগাড়ে বৃষ্টি চলতে পারে দক্ষিণবঙ্গের জেলা গুলিতে, পাশাপাশি মালদা ও দিনাজপুরে জারি করা হয়েছে সতর্কতা।

আরও পড়ুন : ধেয়ে আসছে বৃষ্টি! ৪৮ ঘন্টায় বৃষ্টি পণ্ড করতে পারে পুজো প্রস্তুতি

হাতে আর সময় নেই। মণ্ডপে মণ্ডপে চলছে শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি। ইতিমধ্যে উদ্বোধন হয়ে গিয়েছে বেশ কিছু বড় পুজো। এদিকে ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস পেয়ে পুজো উদ্যোক্তাদের মাথায় হাত। মুর্তিতে শেষ তুলিরটান দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে কুমোরটুলির মৃৎশিল্পীদের। যেভাবেই হোক শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি সেরে নিতে পারলেও আশঙ্কার মেঘ ঘনিয়ে আসছে পুজোর চার দিনের কথা ভেবে। পূর্বাভাস সত্যি করে বৃষ্টি যদি ভাসায়, তবে আমার আপনার পুজো প্ল্যানিং কি ক্যন্সেল!