Date : 2019-11-22

দুধের দাম দিতে নিঃস্ব পাকিস্তান!

ওয়েব ডেস্ক: স্বপ্নের ফেরিওয়ালা হয়ে পাকিস্তানে গণতান্ত্রিক ভাবে ক্ষমতায় আসেন ইমরান খান। কিন্তু পুষ্টির জন্য অপরিহার্য দুধের দাম শুনলে রীতিমতো চমকে উঠবেন যে কেউ। প্রতি লিটার দুধের দাম ছাড়িয়েছে ১৪০ টাকা, যা পেট্রোল-ডিজেলের দামের থেকেও বেশি। শুধু দুধের দাম নয়, নিত্য প্রয়োজনীয় সমস্ত জিনিসের দামের উপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে। আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভারতের সঙ্গে সম্পর্কের টানা-পোড়েনের জেরে আমদানি, রপ্তানি দ্রব্যের উপর ব্যাপক প্রভাব পড়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশের অর্থনৈতিক হাল।

আরও পড়ুন : জম্মু-কাশ্মীর ভারতেরই রাজ্য! ঢোক গিলে স্বীকার করল পাকিস্তান

আরও পড়ুন : পাক শিল্প সম্মেলনে বেলি ডান্সের আসর, ভাইরাল ভিডিও

বিশেষ করে দেশে শাক-সব্জি ফলমূলের দাম ক্রমশ বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। দেশের বানিজ্য সম্মেলন মাতাতে বেলি ড্যান্সারদের দিয়ে আসর মাতানোর চেষ্টা করেছে ইমরান সরকার। কিন্তু তাতে লাভ হয়েছে কই! মহরমের দিন যখন দেশ জুড়ে পেট্রোল-ডিজেলের দাম প্রতি লিটারে ১১৩ টাকা তখন দুধের দাম ছাড়িয়ে গেছে ১৪০ টাকা। করাচিতে জোগানের চেয়ে চাহিদা বেড়েছে এমন নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের তালিকা করে শেষ করা যাচ্ছে না। দাম নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়েছে সরকার। ভারতের সঙ্গে টক্কর দেওয়ার ফল কি হতে পারে এবার হারে হারে সেটাই টের পাচ্ছে পাকিস্তান। পুলওয়ামা হামলার পর থেকে পাকিস্তানকে চাপের মুখে রাখতে ভারত বানিজ্যিক ভাবে চাপের মুখে রেখেছে। এরফলে ব্যাপক মুদ্রাস্ফীতির সম্মুখীন হয়েছে পাকিস্তান। আগামী কয়েক মাসেও এই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়া সম্ভব নয় বলেই মনে করছেন অর্থনৈতিক মহল।