Date : 2019-09-19

জম্মু-কাশ্মীর ভারতেরই রাজ্য! ঢোক গিলে স্বীকার করল পাকিস্তান….

ওয়েব ডেস্ক: পুলওয়ামা হামলা, ৩৭০ধারা রদ এই নিয়ে ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্ক প্রায় তলানিতে ঠেকে। কিন্তু হঠাৎ-ই ভোলবদল পাকিস্তানের। একটি বৈঠকের শেষে পাক বিদেশমন্ত্রী জানান, জম্মু-কাশ্মীর ভারতেরই রাজ্য। এমনকি তিনি জানান, জম্মু কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ। এদিন তিনি সত্যকে স্বীকার করে বলেন, ”ওরা বলছে, জম্মু-কাশ্মীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছে। তাহলে কেন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ও এনজিও-কে ভারতের রাজ্য জম্মু-কাশ্মীরে অনুমতি দিচ্ছে না? ওরা মিথ্যা বলছে। কারফিউ উঠে গেলে বিশ্ব দেখতে পারবে।”।

আরও পড়ুন : মোদীকে আক্রমণ করা মাত্র কারেন্ট খেলেন পাক রেলমন্ত্রী, দেখুন ভিডিও

সূত্রের খবর, লড়াইয়ের বদলে এবার নাকি ভারতের সঙ্গে আলোচনার পথেই অগ্রসর হচ্ছে পাকিস্তান। ইসালামাবাদের এহেন বিপরীত মানসিকতা নিয়ে ইতিমধ্যে প্রশ্ন উঠছে। পাকিস্তানের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে এই দেশের তৈলভাণ্ডার প্রায় শেষ হওয়ার পথে। বানিজ্যিক ক্ষেত্রেও পিছিয়ে পড়েছে পাকিস্তান এমনটাই মত সূত্রের, তাই কাশ্মীর ইস্যুতে কিছুটা হলেও সুর নরম হয়েছে তারা। এই মুহুর্তে পাকিস্তানের বৈদেশিক মুদ্রার ভাণ্ডাহরের যা হাল তাতে চাহিদা অনুসারে তৈল আমদানি করা প্রায় অসম্ভব।

আরও পড়ুন : সাপের খেলা দেখিয়ে হুমকি মোদীকে, ভাইরাল পাকিস্তানি গায়িকার ভিডিও

ঘরে বাইরে চাপের মুখে পড়া তাই ৭২ বছর পর কার্য়ত উলোট পুরাণ শোনা গেল। সেই কারণেই হয়তো ভারতের সঙ্গে যুদ্ধের হুঁশিয়ারি দিয়েও কার্যত পিছিয়ে আসতে হচ্ছে পাকিস্তানকে। আর্থিক মন্দা ভেঙে পড়া অর্থনীতির হাল ফেরাতে মরিয়া হয়ে ইমরানের গলায় এখন ভিন্ন সুর বলেই মনে করছে আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক মহল। তবে এখনই ছায়াযুদ্ধ বন্ধ করছে না পাকিস্তান। বিশেষকরে সন্ত্রাসবাদী হামলার আশঙ্কায় ভারতে ইতিমধ্যে হাইঅ্যালার্ট জারি রয়েছে। তবে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পাক বিদেশমন্ত্রীর কন্ঠে ভিন্ন সুর ধরা পড়ল।