Date : 2019-11-18

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী কি উদ্ধব পুত্র? জল্পনা তুঙ্গে…

ওয়েব ডেস্ক : মহারাষ্ট্রের ঠাকরে পরিবারের জন্য স্মরণীয় হয়ে থাকবে ২০১৯ বিধানসভা নির্বাচন। মহারাষ্ট্রের ঠাকরে পরিবার থেকে এই প্রথম কেউ জয়ী হল বিধানসভা নির্বাচনে। উদ্ধব ঠাকরের ছেলে আদিত্য ঠাকরে ওরলির আসন থেকে দলের তরফে একমাত্র জয়ী প্রার্থী। আর জোট সমীকরণে তাই শিবসেনার তুরুপের তাস হয়েছে আদিত্য। শিবসেনার তরফে বিজেপিকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে আদিত্যকে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী করার জন্য। এদিন উদ্ধব ঠাকরে জানিয়ে দেন, অমিত শাহর সঙ্গে তাদের এই প্রসঙ্গে কথা হয়েছে। শিবসেনাই এবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী নির্ধারন করবে।

বিধানসভা নির্বাচনে মহারাষ্ট্রে ২৮৮টি আসনের সমঝোতায় ১২৬টি আসনে লড়াই করেছে শিবসেনা। বিজেপি লড়াই করেছে ১৫০ আসনে। গতবার শিবসেনা-বিজেপি আলাদা লড়াই করেছিল। ২০১৪ সালে ২৬০টি আসনে লড়াই করে বিজেপি পেয়েছিল ১২২টি আসন। ২৮২ আসনে লড়ে শিবসেনার ঝুলিতে গিয়েছিল ৬৩টি। কিন্তু এবার ১০০ পার করতে পারল না বিজেপি। শিবসেনা এগিয়ে ৫৮টি আসনে। ফলে বিজেপির একার পক্ষে সরকার গঠন অসম্ভব। এমন প্রেক্ষাপটে দরাদরি করতে চাইছে বিজেপি। সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবি জানাতে চলেছে শিবসেনা।

মিলেছে ৬ নির্দল বিধায়কের সমর্থন, হরিয়ানায় সরকার গড়ায় আশার আলো বিজেপির

মুখ্যমন্ত্রী না হলেও উপমুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন উদ্ধবপুত্র আদিত্য ঠাকরে। উদ্ধব ঠাকরে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, এবার ৫০-৫০ সমীকরণে মহারাষ্ট্রে সরকার গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে সহজে মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দিতে রাজি হবে না বিজেপি। তবে বিজেপির তরফ থেকে শরিক শিবসেনার সিদ্ধান্ত নিয়ে এখনই কোন মন্তব্য করা হয়নি। অন্যদিকে মহারাষ্ট্রে শিবসেনাকে বাইরে থেকে সমর্থন দেওয়া নিয়ে চিন্তা ভাবনা শুরু করেছে এনসিপি। বিজেপিকে আটকাতেই মুখ্যমন্ত্রী নিয়ে দর কষাকষির সুযোগ নিয়ে এগিয়ে আসতে পারে তারা।