Date : 2022-05-25

হাইকোর্টের নির্দেশে নিষিদ্ধ হল পশুবলি….

ওয়েব ডেস্ক: পুজোর নাম করে মন্দিরে বলি দেওয়া যাবে না কোন পশু অথবা পাখি। ২৭ সেপ্টেম্বর ত্রিপুরা হাইকোর্ট এমনই নিদান দিলো। এই রায়ের ফলে মন্দির কর্তৃপক্ষের মধ্যেও অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। পশুপ্রেমীরা অবশ্য আদালতের এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছে। তবে আদালতের রায় মেনে গোটা ত্রিপুরায় কোন পশু বলি ছিল না। তবে এমন প্রথা ভেঙে যাওয়ায় ক্রুদ্ধ ভক্তরাও। দুর্গাপুজোর সময় প্রতিবছরই ত্রিপুরাসুন্দরী মন্দিরে চলে অবাধ পশুবলি।

৫০০ বছরের সেই প্রথাও এবার বন্ধ হয়েছে।প্রধান বিচারপতি সঞ্জয় করোল এবং বিচারপতি অরিন্দম লোধ-এর ডিভিশন বেঞ্চ ঐতিহাসিক রায় দিয়েছিল। রাজ্যের অনেক ভক্ত অবশ্য প্রশ্ন তুলেছেন, আদালত কীভাবে মানুষের ধর্মীয় ভাবাবেগে হস্তক্ষেপ করে! ত্রিপুরার একাধিক মন্দিরে নবমীতে মোষ বা ছাগ বলি দেওয়ার প্রথা রয়েছে। এদিকে ধর্মীয় ভাবাবেগে হস্তক্ষেপ করার জন্য হাইকোর্টের এই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ভক্ত ও মন্দির কর্তৃপক্ষের একাংশ। তবে সুপ্রিম কোর্ট রায় না দেওয়া পর্যন্ত গোটা ত্রিপুরা রাজ্যেই বন্ধ থাকবে পশুবলি।