Date : 2019-11-18

স্বামীকে স্বপ্নে ভালোবেসে গর্ভবতী স্ত্রী!…

ওয়েব ডেস্ক: মহাভারতে বর্ণিত আছে পাণ্ডুপত্নি কুন্তি ঋষি দুর্বাসার সেবা করে তাঁর থেকে বর লাভ করেন যে, ইচ্ছে করলেই কুন্তিদেবী যে কোন দেবতাকে আহ্বন করতে পারবেন একটি মন্ত্রের জেরে এবং তাঁর থেকে সন্তান লাভ করতে পারবেন। কুন্তিদেবীর ঋষি দুর্বাসার আশির্বাদ পরীক্ষা করতে ওই মন্ত্র জপ করেন এবং সঙ্গে সঙ্গে তাঁর সামনে স্বয়ং সূর্যদেব আবির্ভূত হন। কুন্তিদেবী কুমারী অবস্থায় সূর্যের পুত্র কর্ণকে লাভ করেন। এ তো গেল মহাকাব্যের কাহিনী। কিন্তু বাস্তবে এমন ঘটনা সম্ভব শুনেছেন! বিহারের ভাগলপুর জেলার এক পুত্রবধুর কথা শুনলে আপনার চোখ কপালে উঠবে। ঘটনাচক্রে তার স্বামী সাতমাস আগেই কর্মসূত্রে বাড়ির বাইরে থাকেন। বছর পাঁচেক আগেই বিয়ে হয়েছে তাদের।

দুয়ের বেশি সন্তান থাকলে আর মিলবে না সরকারি চাকরি !

রয়েছে আড়াই বছরের একটি কন্যা সন্তান। শ্বশুরবাড়িতে থাকাকালীন হঠাৎ-ই সবাই লক্ষ্য করেন ওই গৃহবধু অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন। স্বামী কাজের সূত্রে বাইরে অথচ কিভাবে অন্তঃস্বত্বা হয় পড়লেন তার স্ত্রী! গুজব ছড়াতেই শ্বশুরবাড়ির লোকজন চেপে ধরে গৃহবধুকে। স্ত্রী উত্তরে বলেন, ‘একদিন রাতে স্বামীকে ভালোবেসে স্বপ্নে দেখেছিলাম। তাই অন্তঃস্বত্ত্বা হয়ে পড়েছি।’ এই কথা শুনে হতবাক স্বামী। ওই গৃহবধুকেও চাপ দেওয়া হলেও সে কোন কথা স্বীকার করতে চায়নি। শ্বশুরবাড়ি থেকে চাপ দেওয়া হলে তিনি ভাগলপুরের ডিআইজির সঙ্গে দেখা করেন। শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার ভয় দেখান। এর পরেই তাকে শ্বশুরবাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। পরিবারের তরফে অভিযোগ স্তানীয় এক যুবকের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক রাখত ওই গৃহবধু। এর ফলেই এই ঘটনা ঘটেছে।