Date : 2021-05-10

গড়িয়াহাট বৃদ্ধা খুনে চাঞ্চল্যকর তথ্য, মা-মেয়ে দুজনের সঙ্গেই সম্পর্ক ছিল সৌরভের!….

ওয়েব ডেস্ক:- প্রবীনদের জন্য এই শহর হয়তো আর নিরাপদ নয়। গড়িয়ার গড়চা রোডে বৃদ্ধা খুনের কিনারা করতে নেমে চাঞ্চল্যকর তথ্য এলো পুলিশের হাতে। বৃদ্ধা খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত বৌমার প্রেমিক। মা ও মেয়ে দুজনের সঙ্গেই প্রেমের সম্পর্কে যুক্ত ছিল সৌরভ নামে অভিযুক্ত যুবক। সম্পত্তির জন্যই বৃদ্ধাকে খুন করেছে ওই যুবক। আটক করা হয়েছে বৃদ্ধার বৌমা ও নাতনিকে। পুলিশ সূত্রে খবর, ফেসবুক থেকে প্রথম গুড়িয়ার নামে বৃদ্ধার নাতনির সঙ্গে আলাপ হয় অভিযুক্ত যুবকের। সেখান থেকেই বৌমা ডিম্পলের সঙ্গে আলাপ হয়।

ফের ফাঁকা বাড়িতে বৃদ্ধার রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার, চাঞ্চল্য গড়িয়াহাটে

নিজের ফোনে হার্ডবিট নাম দিয়ে ডিম্পল সৌরভের নম্বর সেভ করে রেখেছিল। মৃত বৃদ্ধা উর্মিলা ঝুন্দের এক ছেলে থাকেন শিলিগুড়িতে। বেশ কিছুদিন আগেই তাঁর বড় ছেলে মারা গিয়েছে। এরপর থেকেই বড় ছেলের বৌ ও নাতনির সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে সৌরভ পুরী নামে এক ব্যক্তির। বুধবার রাতে বৃদ্ধা একাই ছিলেন বাড়িতে। এদিন সকালে তাঁর পরিচারিকা গিয়ে দেখেন দরজা বন্ধ। অনেক ডেকেও কোনও সাড়া না পেয়ে প্রতিবেশীদের খবর দেন তিনি।

বাড়ল ভাড়া, বন্ধ এসি, যাত্রী বোঝাই মেট্রো ছুটল অন্ধকারে

প্রতিবেশীরা জানলা সরিয়ে দেখেন ভিতরে চারদিক রক্তে ভেসে যাচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় পুলিশে। এরপর পুলিশ এসে দরজা ভেঙে উর্মিলা দেবীর রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করা হয়। শরীরের একাধিক জায়গায় গভীর ক্ষতচিহ্ন পাওয়া যায়। বৃদ্ধাকে খুন করার পর আলমারি থেকে বেশকিছু টাকা নিয়ে দিল্লি হয়ে পঞ্জাবে উড়ে যায় আততায়ী সৌরভ। পুলিশ মৃত বৃদ্ধার বউ ও নাতনিকে গ্রেফতার করে তাদের ফোনের সূত্র ধরে সৌরভকে পঞ্জাব থেকে আটক করে।