Date : 2020-12-05

মর্মান্তিক দুর্ঘটনা! শাড়ি পরে সরস্বতী পুজোর অঞ্জলি দিতে গিয়ে পুড়ে মৃত্যু খুদের

শিলিগুড়ি: মাত্র কয়েকদিন হল স্কুলের দরজায় পা রেখেছিল বছর চারেকের বর্ণালী। স্কুল জীবনে পা রাখার পর এই প্রথম সরস্বতী পুজো। শাড়ি পরে অঞ্জলি দেওয়া চাই। মেয়ের বায়না মেনে হলুদ-লালের সুন্দর শাড়ি কিনে এনেছিল তার বাবা। যত্ন করে শাড়ি পরিয়ে দিয়েছিল ঠাকুমা। সঙ্গে মাথায় লম্বা পরচুলা। সরস্বতী পুজোর সকালে মিষ্টি সাজে অঞ্জলি দিতে মন্ডপে ছুটেছিল বর্ণালী। কিন্তু আর ফিরে আসা হল না। বৃহস্পতিবার বিকেলে শিলিগুড়ির ইস্টার্ন বাইপাসের ঠাকুরনগরের ভবেশ মোড়ের বাড়িতে ফিরল তার নিথর দেহ। প্রতিমার সামনে বই রাখতে গিয়ে আচমকাই প্রদীপের আগুন ধরে যায় ছোট্টো বর্ণালীর শাড়ির আঁচলে। চোখের পলকে দাউ দাউ করে জ্বলতে শুরু করে বর্ণালীর দেহ। এরপর তাকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে ২৪ ঘন্টার মধ্যে ডাক্তারদের সব চেষ্টা ব্যর্থ করে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে বর্ণালী।

নিজের জেলাতেই পোস্টিং পাবেন শিক্ষকরা, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

মেয়ের মৃত্যুতে শোকাহত গোটা পরিবার। বর্ণালীর মা বীণা সরকার ও বাবা বিশ্বনাথ সরকার ছোট্ট মেয়ের মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না। একরত্তি নাতনির মৃত্যুতে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন ঠাকুমা। ঘটনার পর সরস্বতী পুজো বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিলিগুড়ি ভবেশ মোড়ের বাসিন্দারা। সেই শাড়ি পরেই ছোট্ট বর্ণালী বুধবার মণ্ডপে অঞ্জলিও দিয়েছিল সকলের সঙ্গে। দুপুরে মা চলে এসেছিলেন বাড়িতে। ঠাকুরমা গিয়েছিলেন পড়শির বাড়িতে। মণ্ডপে খেলতে খেলতে হঠাৎই প্রতিমার সামনে থেকে বই সরানোর কথা মনে পড়ে তার। আর সেই বই সরাতে গিয়েই জ্বলন্ত প্রদীপের আগুনে ঝলসে যায় একরত্তি মেয়ে। সম্ভবত ভয়ে সে শাড়িতে আগুন ধরেছে দেখেও চিৎকার করতে পারেনি। মণ্ডপে ফিরে নাতনিকে অর্ধেক জলন্ত অবস্থায় দেখে দিশাহারা হয়ে পড়েন ঠাকুমা।

বর্ণ ও লিঙ্গ বৈষম্যের প্রাচীর ভেঙে সরস্বতী পুজো করছেন আদিবাসী ছাত্রী

যদিও শেষ রক্ষা করতে পারেননি ঠাকুমা। ঘটনার মুহুর্তে ছোট্ট বর্ণালীকে শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতালে বার্ন ইউনিট না থাকায় তাকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়। সেখান থেকে পরিবারের লোকজন তাকে নার্সিংহোমে ভর্তি করার চেষ্টা করলে চিকিৎসকদের ছুটি থাকায় সেই চেষ্টাও ব্যর্থ হয়। শেষে বিকেল নাগাদ বর্ণালীকে মেডিক্যাল কলেজে ভরতি করা হয়। সেখানেই রাত দেড়টা নাগাদ মৃত্যু হয় তার। ময়নাতদন্তের পর বৃহস্পতিবার দুপুরে দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়।