Date : 2021-09-26

প্রকৃতির কৃপায় সমুদ্রে জোয়ার এলেও এ যাত্রায় রক্ষা পেল তাজপুর মন্দারমনি

ওয়েব ডেস্ক : শিয়রে ছিল ভরা কটালের শঙ্কা। তবে প্রকৃতির কৃপায় সমুদ্রে জোয়ার এলেও তার প্রভাব বেশি না থাকায় এ যাত্রায় রক্ষা পেল তাজপুর, মন্দারমনি, জলদা, জামড়া, চাঁদপুর সহ সমুদ্র সৈকত এলাকাগুলির গ্রামগুলি।

26 শে জুন প্রলয় দেখেছিল দিঘা। ইয়াস দুর্যোগ ও পূর্নিমার ভরা কটাল এই জোড়া ফলায় বড় বড় ঢেউ গ্রাস করেছিল দিঘা সন্দুরীকে। লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছিল সমুদ্র সৈকত। যার ক্ষত এখনও দগদগে। এরইমাঝে শুক্রবার ফের অমাবস্যার কটাল। সূর্যগ্রহণ ও নিম্নচাপ থাকায় কটালে যদি জলোচ্ছ্বাস বাড়ে তাহলে বিপদ ঘনিয়ে আসতে পারে সৈকতনগরীতে। এই আতঙ্কে প্রমাদ গুনছিল সৈকতবাসী। ঘড়িতে সকাল 10 টা। সমুদ্রে জোয়ার এল তবে তার প্রভাব বেশি না থাকায় এ যাত্রায় রক্ষা পেল তাজপুর, মন্দারমনি, জলদা, জামড়া, চাঁদপুর সহ সমুদ্র সৈকত এলাকাগুলির গ্রামগুলি।

বিপদ আঁচ করেই প্রশাসন দ্রুত অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে গিয়েছিল এইসব গ্রামগুলির বাসিন্দাদের। অন্যদিকে উত্তর বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপের জেরে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয় জেলায় জেলায়। আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ ডাঃ সুজীব কর জানিয়েছেন নিম্নচাপ শক্তি হারানোয় ভারী বৃষ্টির সম্ভবনা নেই।

অমাবস্যার ভরা কটাল ও নিম্নচাপের জেরে শুক্রবার বৃষ্টিভেজা আবহাওয়া বজায় থাকল দক্ষিণবঙ্গে। তবে এই অমবস্যা ভরা কটালে সেইরকম জলোচ্ছ্বাস না দেখা গেলেও আগামী 26 তারিখ পূর্নিমার ভরা কটালে জলোচ্ছ্বাস বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। অন্যদিকে আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর রবিবারই বর্ষার আগমন ঘটবে দক্ষিণবঙ্গে।