Date : 2021-10-22

রাজ্যে 30 জুন পর্যন্ত বহাল বিধিনিষেধ

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে কালো ছায়া এখনও সরেনি রাজ্য থেকে। তবে গত কয়েকদিনের পরিসংখ্যান দেখলে বোঝা যাবে কিছুটা স্বস্তি দিচ্ছে দৈনিক সংক্রমণ। রাজ্যে 15ই জুন পর্যন্ত জারি ছিল বিধিনিষেধ। কিছু কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছিল কড়া বিধিনিষেধে। 16 তারিখের পর রাজ্যে কী নির্দেশিকা দেওয়া হবে তা নিয়ে প্রশ্ন ছিল রাজ্যবাসীর মনে। আপাতত 30 জুন পর্যন্ত বিধিনিষেধ আগের মতোই বহাল থাকবে বলে ঘোষণা নবান্নে সাংবাদিক ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও মুখ্যসচিব এইচকে দ্বিবেদী। তবে আগের থেকে বেশকিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে। কী কী বিষয়ে ছাড় দেওয়া হল। কোন কোন বিষয়গুলিতে বহাল থাকল নিষেধাজ্ঞা।

সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী 25 শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ চলবে বেসরকারি অফিসে। সকাল 11টা থেকে সন্ধে 6টা পর্যন্ত খোলা থাকবে খুচরো দোকান। তবে বাস, মেট্রো-সহ গণপরিবহনে আগের মতোই নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকছে আগের মতোই। করোনা-সহ জরুরি পরিষেবায় ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে গণ পরিবহনে। এছাড়া 50 শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ চলবে আইটি সেক্টরগুলি। সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে খুচরো দোকান, বাজারহাট, মাংসের দোকান, দুধ ডিমের দোকান খোলার ব্যাপারে।

সকাল 7টা থেকে 11টা পর্যন্ত খোলা থাকবে খুচরো দোকান। রেস্তোরাঁ, পানশালা, শপিং মল খোলা থাকবে দুপুর 12টা থেকে 8টা পর্যন্ত। 50 শতাংশ গ্রাহক চালানো যাবে ব্যবসা। দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে চলবে খেলাধুলো। তবে কড়াকড়ির আওতায় থাকছে জিম, সুইমিং পুল। করোনাকালে দীর্ঘদিন বন্ধ থেকেছে টলিপাড়ার কাজ। নতুন ঘোষণা অনুযায়ী 50 জন কলা-কুশলী নিয়ে শুরু করা যাবে শ্যুটিং। সকাল 10টা দুপুর 2টো অবধি খোলা থাকবে ব্যাঙ্ক। সবমিলিয়ে 30শে জুন পর্যন্ত লোকাল ট্রেন ও মেট্রো পরিষেবা বন্ধ থাকায় কিছুটা হলেও ভোগান্তির শিকার হতে হবে রাজ্যবাসীর একাংশকে।