Date : 2021-07-24

ভ্যাকসিনের অভাবে দিল্লিতে বন্ধ টিকাকরণ

একে করোনা আতঙ্ক তার ওপর ভ্যাকসিন সমস্যা। একদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে বিনোদনের বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে সচেতনতামূলক প্রচারে আবেদন করা হচ্ছে মানুষকে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য। কিন্তু ভ্যাকসিন যদি ফুরিয়ে যায় তাহলে কি করে হবে । এমনই সমস্যার মুখোমুখি রাজধানী দিল্লি।

দিল্লির উপ মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসৌদিয়া জানিয়েছেন ফুরিয়ে গিয়েছে কোভিশিল্ডের ভ্যাকসিন। ফলে সরকার পরিচালিত অধিকাংশ টিকাকরণ কেন্দ্র বন্ধ থাকবে।পর্যাপ্ত টিকা না থাকার কারণে সোমবারও রাজধানীতে টিকাকরণ হয়েছে অন্যান্য দিনের তুলনায় অনেকটাই কম। মণীশ সিসৌদিয়া তার ট্যুইটারে জানিয়েছেন ‘ফের দিল্লিতে টিকা ফুরিয়ে গিয়েছে।

কেন্দ্র যা টিকা দিয়েছে, তাতে দু’এক দিন চলবে। তার পর আবার বেশ কয়েকদিন বন্ধ থাকবে। শুরু হওয়ার এত দিন পরও কেন দেশের টিকাকরণ কর্মসূচিতে ঘাটতি হচ্ছে?’ এর আগেএ টিকাকরণে ঘাটতি থেকে অক্সিজেন ঘাটতি সবেতেই বারবার সরব হয়েছে দিল্লি।২১ জুন সমস্ত রাজ্যকে বিনামূল্যে টিকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করে কেন্দ্র।

তার পরও বেশ কিছুদিন টিকা দেওয়া বন্ধ ছিল দিল্লিতে। শুধু দিল্লি নয়, দেশ জুড়েই গত কয়েক সপ্তাহে টিকাকরণে ঘাটতি লক্ষ করা গিয়েছে। এই কয়েকদিন টিকাকরণ কেন্দ্র বন্ধ থাকার কারণে সমস্যায় পড়বেন অনেক মানুষ। তারওপর কারো ষদি দ্বিতীয় ডোড়ের সময় হয়ে গিয়ে থাকে তাহলে তাদের সমস্যা আরো চরমে।