Date : 2021-09-20

হাতে আসতে চলেছে অ্যান্টি ভেনম ট্যাবলেট

সায়ন্তিকা ব্যানার্জি, রিপোর্টার : সাপে কামড়ানো নিয়ে এখনও অনেক মানুষের অসচেতনতা রয়েছে। এখনও বহু মানুষ সাপে কামড়ালে হাসপাতালে নিয়ে আসার বদলে ওঝার কাছে যান। আর এর ফলে মারা যান বহু সংখ্যক মানুষ।।আর তাই এই মৃত্যু রুখতে আসছে অ্যান্টি ভেনম ট্যাবলেট। শীঘ্রই শুরু হচ্ছে এর ট্রায়াল। এই নিয়ে চলছে গবেষণাও।

এই গবেষণা অর্থাৎ ক্লিনিকাল ট্রায়াল চলছে কলকাতা ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজে। সারা দেশে ৪ টি হাসপাতালে, যার মধ্যে আছে কল্যানী জওহরলাল নেহরু হসপিটালও। পূর্বঅঞ্চলে এটি হচ্ছে একমাত্র কলকাতার এই গভর্নমেন্ট মেডিক্যাল কলেজ এবং হাসপাতালে। এই ওষুধটির ট্রায়ালের স্পনসর হলো আমেরিকানা কোম্পানি অফিরেক্স ইনকরপোরেশন। সারা দেশে ৭২ জন বিষাক্ত সাপে কাটা রোগীদের উপর এই ট্রায়াল হবে। ৩৬ জন পাবে ভারেসপ্ল্যাডিব ট্যাবলেট এবং স্ট্যান্ডার্ড অফ কেয়ার আর বাকি ৩৬ জন পাবে প্লাসিবো এবং স্ট্যান্ডার্ড অফ কেয়ার।

কিভাবে কাজ করবে এই ওষুধ? বিষাক্ত সাপে কামড়ানোর পর ৭৫% ভাগ মানুষ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে অথবা হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই মারা যান। এত দিন পর্যন্ত সাপে কামড়ানো রোগীর একমামাত্র চিকিৎসা ছিল অ্যান্টি স্নেক ভেনম যেটা হাসপাতাল ছাড়া কোথাও পাওয়া সম্ভব নয়। আর এর বিকল্প হিসাবেই গবেষণা শুরু হয়েছে “ভারেসপ্ল্যাডিব মিথাইল” ট্যাবলেটের। এই ওষুধটি বাড়িতেই খেয়ে নিলে বিষের বিরুদ্ধে কাজ করতে শুরু করবে।

অর্থাৎ আর কিছুদিনের অপেক্ষা। তারপরেই হাতে চলে আসবে সাপে কামড়ালে এক যুগান্তকারী ওষুধ।