Date : 2021-10-22

বাড়ছে জ্বরের প্রকোপ, নির্দেশিকা প্রকাশ স্বাস্থ্য দফতরের

সায়ন্তিকা ব্যানার্জি, রিপোর্টার : জলপাইগুড়ি, শিলিগুড়ি ও মালদার বিভিন্ন হাসপাতালে অসুস্থ হয়ে শিশু ভর্তির সংখ্যা বাড়ছে। জ্বর, শ্বাসকষ্ট, সর্দির লক্ষ্মণ নিয়ে ভর্তি হচ্ছে শিশুরা। এর ফলে ছড়িয়েছে আতঙ্ক। যদিও স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে, বিভিন্ন সংক্রমণের কারণেই জ্বরে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা। আতঙ্ক দূর করতে নির্দেশিকা জারি করেছে স্বাস্থ্য দফতর। শিশু অসুস্থ হলে কী করা উচিৎ ও কী করা উচিৎ নয় তা বলা হয়েছে –

বলা হয়েছে বাড়িতে কারোর জ্বর হলেই দু’বছরের নিচের শিশুদের আলাদা রাখার ব্যবস্থা করতে হবে। ৫ বছর বা তার বেশি বয়সের শিশুদের জ্বর হলে পালস অক্সিমিটার দিয়ে অক্সিজেন স্যাচুরেশন মাপতে হবে। শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা ৯০-এর নিচে থাকলেই সঙ্গে শ্বাসকষ্ট থাকলে ঝুঁকি নিতে নিষেধ করা হয়েছে। বলা হয়েছে হাসপাতালে ভরতি করার কথা।

ম্যালেরিয়া, টাইফয়েড, ডেঙ্গু, ক্রাব টাইফাস— এই সমস্ত রোগের সম্ভাবনাকে মাথায় রেখে চিকিৎসকদের রোগী পরীক্ষা করতে হবে। ইনফ্লুয়েঞ্জা এক অতি ছোঁয়াচে রোগ। যা দ্রুত সংক্রমিত হয়। তাই এই রোগ থেকে বাঁচতে কোভিডের মতোই নিয়ম নেমে চলার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

তাঁদের বক্তব্য, মাস্ক পরতে হবে। স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করতে হবে। এবং শিশুদের অবশ্যই আলাদা করে রাখতে হবে। কারণ দ্রুত তাদের সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। বলা হয়েছে, হাসপাতালে যাঁরা আসবেন তাঁদের মধ্যে জটিল কোনও সমস্যা থাকলে থুতু, কফ, সর্দির নুমনা সংগ্রহ করে নাইসেড এবং স্কুল অফ ট্রপিক্যাল মেডিসিনে পাঠাতে হবে।