Date : 2021-09-20

দিদির কাজ যোগীর নামে। ইউ পি-র বিজ্ঞাপনে ছবির ভ্রান্তিবিলাস

সঞ্জু সুর, রিপোর্টার : ছিলো রুমাল, হয়ে গেল বেড়াল। এ যেন ভোজ বাজির খেলা। তা ভোজবাজির বাবাজি যখন সাধু সন্ন্যাসী হয়, তখন এমন ভোজবাজি দু’একটা হলেও হতে পারে। ইয়ে ইন্ডিয়া হ্যায় ভাই, ইহা সবকুছ হো সকতা হ্যায়। কিন্তু তাই বলে কলকাতার সেতু উত্তরপ্রদেশে ?

ঠিক এমনটাই ঘটেছে রবিবাসরীয় সকালে। যোগী আদিত্যনাথের পাঁচ বছরের মেয়াদকালে রুপান্তরিত উত্তরপ্রদেশ শীর্ষক একটি বিজ্ঞাপন বেড়িয়েছে দেশের বিভিন্ন প্রথম সারির সংবাদপত্রে। পাতা জোড়া বিজ্ঞাপনের একদিকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর ঢাউস ছবি। মাথার দিকে লেখা TRANSFORMING UTTAR PRADESH UNDER YOGI ADITYANATH.

পাতার ডানদিকে যোগীর বার্তা, “২০১৭-র আগে উত্তরপ্রদেশ এর নাম শুনলেই সকলে হাঁসতো। ২০১৬ তে এই রাজ্য অর্থনৈতিক দিক দিয়ে সারা দেশের নিরিখে ষষ্ঠ স্থানে ছিলো। আর ২০২০ সালে দেশের দ্বিতীয় বৃহৎ অর্থনীতির রাজ্য হলো উত্তরপ্রদেশ।”

এতক্ষণ পর্যন্ত তো ঠিকই ছিলো। যে কোনো রাজ্য‌ই নিজেদের দাবি মতো বিজ্ঞাপন দিতেই পারে। বিশেষ করে সামনে যখন বিধানসভা ভোট আসন্ন। কিন্তু গোলোযোগ বাঁধলো বিজ্ঞাপনের সাথে দেওয়া ছবির দিকে তাকিয়ে। যে ছবি দিয়ে যোগী রাজ্যের উন্নয়নের ফিরিস্তি দেওয়া হয়েছে, সেই ছবির মধ্যে জ্বলজ্বল করছে নীলা সাদা রঙের কলকাতার ‘মা’ উড়ালপুলের ছবি। যেখানে রয়েছে কলকাতার আইকনিক হলুদ ট্যাক্সি ও।

স্বাভাবিকভাবে বিজেপির হিন্দুত্বের রাজনীতির পোষ্টার বয় যোগী রাজের এই বিজ্ঞাপন নিয়ে তৃণমূলের তরফে ধেয়ে এসেছে একের পর এক ট্যুইট আক্রমণ। তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় একটি ছবি ট্যুইট করে লেখেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৈরি করা ইনফ্রাস্ট্রাকচার এর ছবি চুরি করে নিজের রাজ্যের রূপান্তরের কথা বলছেন যোগী আদিত্যনাথ।” অভিষেকের টিপ্পনী,”বিজেপির সবচেয়ে শক্তিশালী রাজ্যেই ডবল ইঞ্জিন মডেল ব্যর্থ হয়েছে।” বিজ্ঞাপনের ছবি ট্যুইট করে কটাক্ষ ছুড়ে দেন ফিরহাদ হাকিম, মুকুল রায় রাও। তবে বিশিষ্ট সাংবাদিক বীর সাংভী-র এই বিষয়ে ট্যুইটটি বেশ মজার। তুমিও বিজ্ঞাপনের ছবিটি টুইট করে লেখেন, “তাহলে, যোগী উত্তরপ্রদেশকে বাংলা বানাতে চাইছে ? কেন নয় ? ভাল আইডিয়া।” যোগী সরকারের এই বিজ্ঞাপন ভ্রান্তিবিলাস নিয়ে এ রাজ্যের বিজেপির এক নেতা বললেন, “সবকিছু এজেন্সিকে দিয়ে করালে এমনই হয়।” সেই সঙ্গে তার সহাস্য উক্তি, “ঐ বিজ্ঞাপন এজেন্সির কপালে দুঃখ আছে।”

ভুল টা বিজ্ঞাপন এজেন্সির হোক আর যার হোক, বিজেপি কে আক্রমণ করার এই সুযোগ কোনমতেই ছাড়েনি তৃণমূল কংগ্রেস।