Date : 2021-10-22

মন্ত্রীসভায় রদবদল ! পরবর্তী অর্থমন্ত্রী কে ?

সঞ্জু সুর, রিপোর্টার : ১৭ সেপ্টেম্বর উত্তর প্রদেশের লক্ষ্ণৌতে জিএসটি কাউন্সিলের ৪৫ তম বৈঠক। এই বৈঠকে রাজ্যের প্রতিনিধি হিসাবে যোগ দিচ্ছেন পুর ও নগরন্নোয়ন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। ইতিমধ্যেই লক্ষ্ণৌ উড়ে গিয়েছেন তিনি। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন অর্থ দফতরের সচিব মনোজ পন্থ ও অর্থ দফতরের আধিকারিকরা। গতবছর দেশে কোভিড ছড়িয়ে পড়ার পর এই প্রথম জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠক হচ্ছে যেখানে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী সহ সব সদস্য‌ই সশরীরে উপস্থিত থাকছেন। ৪৫ তম কাউন্সিলের বৈঠকের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এজেন্ডা হলো পেট্রোল ডিজেল কে জিএসটির আওতাভুক্ত করা হবে কি না সেটা ঠিক করা।

জিএসটি কাউন্সিলের এই বৈঠকের জন্য গত মঙ্গলবার নবান্নে প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে হোম ওয়ার্ক করেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। সেখানে তাঁকে পুরো বিষয়টি ব্রিফ করেন অর্থ সচিব মনোজ পন্থ সহ দফতরের অন্যান্য আধিকারিকরা।

অমিত মিত্রের পরিবর্তে রাজ্যের পক্ষে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের প্রতিনিধিত্ব বেশকিছু জল্পনার জন্ম দিয়েছে। নবান্নের এক আমলার মতে, এমন ঘটনা হতেই পারে। এক মন্ত্রীর অনুপস্থিতিতে অন্য এক মন্ত্রী বৈঠকে উপস্থিত হতেই পারেন। তবে অর্থ দফতরে রয়েছেন এমন এক আধিকারিকের মতে, এটা একটা ইঙ্গিত হতে পারে। সেক্ষেত্রে পুজোর পর মন্ত্রীসভায় রদবদল করে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য কে অর্থমন্ত্রকের দ্বায়িত্বে নিয়ে আসা হতে পারে বলে তিনি মনে করেন।

অমিত মিত্র রাজ্য মন্ত্রীসভার সদস্য হলেও তিনি বিধায়ক নন। তিনি বয়স ও অসুস্থতার কারণে ২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থীই হন নি। এবং এখনো তিনি প্রার্থী হতে চান না। ফলে নভেম্বর মাসের পাঁচ তারিখের পর সংবিধান অনুযায়ী তিনি আর মন্ত্রী পদে থাকতে পারবেন না। সেক্ষেত্রে নতুন কাউকে এই দ্বায়িত্ব দেওয়া হতে পারে। চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য কে জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকে পাঠিয়ে কি সেই ইঙ্গিতটাই দিয়ে রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং ! নবান্নের কর্তাদের অনেকের অবশ্য তেমনই মত।