Date : 2021-11-27

হিংসায় জড়িত খালেদা পুত্র ? তারেককে দেশে ফেরাতে তৎপর হাসিনার সরকার

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশে দুর্গাপুজোয় সাম্প্রদায়িক হিংসার ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই ঘটনায় এবার জড়াল খালেদা জিয়ার পুত্র এবং বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নাম। বিএনপির সঙ্গে মৌলবাদী দল জামাতও এই কাণ্ডে জড়িত। এমনই অভিযোগ তুলেছেন আওয়ামি লিগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য-সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মেহমুদ।  তাঁকে দেশে ফেরাতে তৎপর হয়ে উঠল হাসিনার সরকার। ইতিমধ্যে লন্ডনের সঙ্গে গোপনে আলোচনাও শুরু হয়েছে বলে ঢাকা সূত্রে খবর। অক্টোবরেই বিদেশসচিব মাসুদ বিন মোমেন ব্রিটেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের স্থায়ী সেক্রেটারি ম্যাথিউ রাইক্রফটের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা-সহ একাধিক  বিষয়ে আলোচনা হয়।

হিংসার ঘটনা ছাড়াও দুর্নীতি সহ প্রায় দেড় ডজন মামলা ঝুলে রয়েছে লন্ডন প্রবাসী তারেকের বিরুদ্ধে। ২১ অগস্ট গ্রেনেড হামলা-সহ কয়েকটি মামলায় বাংলাদেশের আদালতে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন খালেদা পুত্র। ২০১৮ সাল থেকেই তাঁকে ফেরানোর বিষয়ে জোর দিচ্ছে বাংলাদেশ। ব্রিটেনের কাছে তারেকের প্রত্যর্পণের বিষয়টি তুলে ধরেছে ঢাকা। সেপ্টেম্বরে বিএনপি নেতাদের সঙ্গে তারেক রহমানের ভারচুয়াল রুদ্ধদ্বার বৈঠকের পর, বাংলাদেশের অনুরোধের বিষয়টিকে তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন একাংশ।

কোন কোন ব্যক্তিকে প্রত্যার্পণের আর্জি জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকার, তা প্রকাশ করেননি ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট ডিকসন। তিনি বলেছেন, অভিযুক্তদের দেশে ফেরানোর বিষয়টি ব্রিটিশ সরকারের উপর নয় বরং আদালতের উপর নির্ভর করে। প্রত্যর্পণের মতো অত্যন্ত স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে জনসমক্ষে আলোচনা সঠিক নয় বলেও জানান তিনি। রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক টানাপোড়েন এড়াতেই ব্রিটেন এই নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের একাংশের।Attachments area