Date : 2021-12-02

ক্রিপ্টোকারেন্সি ইস্যুতে সমস্ত দেশকে একজোট হয়ে কাজ করার বার্তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক : বিটকয়েন বা ক্রিপ্টোকারেন্সির যাতে অপব্যবহার না করা হয়। তেমনটা হলে যুব সমাজের পক্ষে তা মারাত্মক ক্ষতিকর হতে পারে। এই ইস্যুতে সমস্ত দেশগুলিকে একজোট হয়ে কাজ করার বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বৃহস্পতিবার একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল অস্ট্রেলিয়ান স্ট্র্যাটেজিক পলিসি ইনস্টিটিউট। অস্ট্রেলিয়ার সিডনির ওই অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। সেখানেই নরেন্দ্র মোদী ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে সতর্ক করেন। তিনি বলেন, বিশ্বের সমস্ত দেশের যৌথভাবে বিটকয়েন সংক্রান্ত একটি নীতি নির্ধারণ করা উচিত। রাষ্ট্র তথা জনস্বার্থের দিকটিও গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করা উচিত। পাশাপাশি  বাণিজ্যে বিনিয়োগের দিকেও উৎসাহ দেওয়া প্রয়োজন। মোদী বলেন গণতন্ত্রকে একজোট হয়ে নিশ্চিত করতে হবে, যাতে বিটকয়েন খারাপ হাতে না যায়। তা হলে যুব সমাজের উপর মারাত্মক প্রভাব পড়তে পারে। এখানেই শেষ নয়। এর ফলে বিটকয়েনের অনিয়ন্ত্রিত বাজার থেকে লাভবান হতে পারে অপরাধ চক্র। সন্ত্রাসবাদে অর্থ যোগানের ক্ষেত্রেও হাতিয়ার করা হতে পারে বিটকয়েনকে।

কয়েকদিন আগেই এই নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবিষয়ে বৈঠক করেছিল অর্থমন্ত্রক সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। সংশ্লিষ্ট কমিটির সদস্যরা একমত হয়েছিলেন যে বিটকয়েনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা যায় না। তবে এর নিয়ন্ত্রণের প্রয়োজন রয়েছে।

উল্লেখ্য, বিটকয়েনের বাড়বাড়ন্ত রুখতে আইনি পদক্ষেপ নিতে চলেছে কেন্দ্র। এই নিয়ে একটি বিলের খসরা তৈরি হয়েছে। বিটকয়েনের ব্যবহার একেবারে বন্ধ না করে, নিয়ন্ত্রিত পথে কীভাবে ব্যবহার করা যায়, তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা করছে কেন্দ্র।