Date : 2022-01-29

শীতে মধুর উপকারিতা

রিমিতা রায়, নিউজ ডেস্ক : শীতকালে অনেকেই সর্দির সমস্যায় ভোগেন। খুব সহজেই আক্রান্ত হয়ে পরেন অনেকেই। এমনকি শীতে ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। এর থেকে রক্ষা করে মধু। তাই শীতের দিনে মধু খাওয়া অনেক উপকারি ।প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস জলে সামান্য পরিমান মধু মিশিয়ে খেলে ভালো ঘুম হয়। সামান্য গরম জলে মধু মিশিয়ে নিয়মিত খেলে কাশির হাত থেকেও রক্ষা পাওয়া যায়। খুসখুসে কাশির সমস্যায় আদাকুচি দিয়ে জল ফুটিয়ে রস তৈরি করে তার সঙ্গে এক বা দুই চামচ মধু মিশিয়ে খেলে তা অনেকটাই কমে যাবে। শরীরের কোথাও সামান্য কেটে গেলে মধুর প্রলেপ দিলে ইনফেকশেনর হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। শীতকালে অনেকেরই শ্বাসকষ্ট বেড়ে যায়। নিয়মিতচায়ের সঙ্গে মধু মিশিয়ে খেলে উপকার পাওয়া যায়।

মধু নিয়মিত খেলে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।শীতে অনেকের শরীরে বিভিন্ন ব্যথা বাড়ে।নিয়মিত মধু খেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। মধু দাঁত শক্ত করে। দৃষ্টিশক্তি ও স্মরণশক্তি বৃদ্ধি করে। মধুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট দেহকে নানা ঘাত-প্রতিঘাত থেকে রক্ষা করে। এ জন্য প্রতিদিন মধু খাওয়া যেতে পারে। মুধু পুষ্টিগুণে ভরপুর। ১০০ গ্রাম মধুতে ৩০৪ ক্যালরি থাকে। এর মধ্যে ৮২ গ্রাম সুগার, যার মধ্যে রয়েছে সুক্রোজ, ফ্রুকটোজ, গ্লুকোজ, মাল্টোজ। এছাড়াও থাকে ০.২ গ্রাম প্রোটিন ,০.৩ গ্রাম, পটাশিয়াম ,৫২ মিলিগ্রাম এবং ৪ মিলিগ্রাম সোডিয়াম। মূলত মধুতে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। মধুতে প্রায় ২ শতাংশ আয়রন থাকে।তাই শীতে ভালো থাকতে গেলে মধু খাওয়া জরুরি।