Date : 2022-01-26

দূষণ বাড়ায়, খোলার চারদিনের মাথায় দিল্লিতে ফের বন্ধ স্কুল

রিমা দত্ত, নিউজ ডেস্ক ২৪ ঘণ্টা সময় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। এই সময়সীমার মধ্যে দিল্লি এবং তার প্রতিবেশী রাজ্যগুলিকে কারখানা এবং গাড়ি দূষণের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। ফলে চারদিনের মাথায় ফের স্কুল বন্ধ করে দিল কেজরীবাল সরকার। এবিষয়ে দিল্লির পরিবেশমন্ত্রী গোপাল রাই জানিয়েছেন, ‘‘বাতাসে দূষণের কমার পূর্বাভাস পেয়ে আমরা স্কুল চালু করেছিলাম। কিন্তু, দূষণের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার ফলে, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হল।’’

এদিন দূষণ সংক্রান্ত একটি মামলাতে দিল্লির সরকারকে তুলোধোনা করলো সুপ্রিম কোর্ট। দূষণ নিয়ন্ত্রণে কেজরীবাল সরকারের পদক্ষেপ নিয়ে তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেন প্রধান বিচারপতি এনভি রমনা। তিনি বলেন, ‘‘আমার মনে হয় দূষণ নিয়ন্ত্রণে সরকার কিছুই করেনি, শুধুই সময় নষ্ট করেছে।’’১৩ নভেম্বর থেকে বন্ধ থাকার পর সোমবার থেকে ফের দিল্লির স্কুল, কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে যায়। কিন্তু, আদালতের ধমক খেয়ে ফের বন্ধ করা হল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি। রাজধানীতে সমস্ত ধরনের নির্মাণের ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। স্কুল খোলা নিয়ে কেজরীবাল সরকারকে ধমক দিয়ে আদালত বলে, ‘‘তিন-চার বছরের শিশুরা স্কুলে যাচ্ছে আর বড়রা বাড়িতে বসে কাজ করছেন।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘এ বার আমরা আপনাদের সরকার চালানোর জন্য কাউকে নিয়োগ করব।’’
শুনানিতে প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ বলেছে, দিল্লি সরকারের ফরমান মেনে বাবা ‌-‌মা ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছে। আর দূষণের মধ্যে ছোট ছোট বাচ্চাদের স্কুলে পাঠানো হচ্ছে‌‌‌‌!‌ সর্বোচ্চ আদালত কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার গুলিকে ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছে। এই সময়ের মধ্যে উপযুক্ত পদক্ষেপ না করলে নির্দেশ জারি করবে সুপ্রিম কোর্ট।