Date : 2022-08-10

বর্ষবরণের আবহে কোভিড নিয়ে পার্ক স্ট্রিটে মাইকিং পুলিশের

সঞ্জনা লাহিড়ী, রিপোর্টার: বর্ষবরণ নিয়ে তৎপর কলকাতা পুলিশ। বর্ষবরণের সন্ধ্যায় যানবাহন চলবে মাদার টেরেসা সরণীতে। চলবে কোভিড নিয়ে পুলিশের মাইকিং। করোনার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে ওমিক্রনের প্রকোপ। মুম্বাই পুলিশ ইতিমধ্যেই বর্ষবরণ নিয়ে এক গুচ্ছ বিধি নিষেধ আরোপ করেছে। বড়দিনে পার্ক স্ট্রিটের ভিড়ের কথা মাথায় রেখে বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে কলকাতা পুলিশ। উল্লেখযোগ্য ভাবে পার্ক স্ট্রিটের রাস্তা যানবাহনের জন্য খুলে দেওয়া হবে পাশাপাশি কোভিড বিধি মানার জন্য পুলিশের তরফ থেকে মাইকিং করা হবে।

বড়দিনে পার্ক স্ট্রিট চত্বরে দেখা গেছিল মানুষের উপচে পড়া ভিড়। বর্ষবরণে যে ভিড় আরও বাড়বে পার্ক স্ট্রিট চত্বরে তা নিয়ে আশঙ্কায় প্রশাসন। তাই ভিড় সামলাতে রাখা হচ্ছে বিশেষ টিম। সাড়ে ৩ হাজার পুলিশ থাকবে রাস্তায়। পার্ক স্ট্রিট চত্বরকে ভাগ করা হয়েছে ৫ টি সেক্টরে। প্রতি সেক্টরের দায়িত্বে থাকবেন একজন করে ডিসি পদমর্যাদার আধিকারিক।করোনার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে ওমিক্রনের প্রকোপ। মুম্বাই পুলিশ ইতিমধ্যেই বর্ষবরণ নিয়ে এক গুচ্ছ বিধি নিষেধ আরোপ করেছে। বড়দিনে পার্ক স্ট্রিটের ভিড়ের কথা মাথায় রেখে বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে কলকাতা পুলিশ। উল্লেখযোগ্য ভাবে পার্ক স্ট্রিটের রাস্তা যানবাহনের জন্য খুলে দেওয়া হবে পাশাপাশি কোভিড বিধি মানার জন্য পুলিশের তরফ থেকে মাইকিং করা হবে। বড়দিনে পার্ক স্ট্রিট চত্বরে দেখা গেছিল মানুষের উপচে পড়া ভিড়। বর্ষবরণে যে ভিড় আরও বাড়বে পার্ক স্ট্রিট চত্বরে তা নিয়ে আশঙ্কায় প্রশাসন। তাই ভিড় সামলাতে রাখা হচ্ছে বিশেষ টিম। সাড়ে ৩ হাজার পুলিশ থাকবে রাস্তায়। পার্ক স্ট্রিট চত্বরকে ভাগ করা হয়েছে ৫ টি সেক্টরে। প্রতি সেক্টরের দায়িত্বে থাকবেন একজন করে ডিসি পদমর্যাদার আধিকারিক। তাঁদের অধীনে থাকবেন ২-৩ জন করে অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার পদমর্যাদার পুলিশ আধিকারিক। বাড়তি নজরদারি শুরু হবে ৩১ তারিখ রাত ১০ টা থেকে। ২০ টি মোটর সাইকেল পেট্রলিং করবে শহর জুড়ে। পার্ক স্ট্রিট এলাকায় থাকছে ৮ টি পার্কিং জোন। ২ টি কুইক রেসপন্স টিম থাকবে। পার্ক স্ট্রিট ও সংলগ্ন এলাকায় থাকছে ১১টি ওয়াচ টাওয়ার। ১ টি বজরা রাখা হচ্ছে। একটি বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর দল রাখা থাকবে পার্ক স্ট্রিট থানায়। ২২ টি PCR ভ্যান ঘুরবে শহর জুড়ে। ২ টি রিভার ট্রাফিকের টিম পেট্রল করবে পার্ক স্ট্রিট সংলগ্ন গঙ্গার ঘাট গুলিতে। শহরের ৯৭ টি চেকিং পয়েন্টে চলবে গাড়ি চেকিং। ৭ টি অ্যাম্বুলেন্স ও ২ টি ট্রমা কেয়ার অ্যাম্বুলেন্স রাখা হবে পার্ক স্ট্রিট চত্বরে। থাকবে দমকলের একটি দল। সারা শহরে ১২৬ টি পিকেট করা হয়েছে। পার্ক স্ট্রিট এলাকায় অস্থায়ী কন্ট্রোল রুম থেকে চলবে নজরদারি। থাকবে কমব্যাট ও ৱ্যাফ। ড্রোন ও বাড়তি সিসিটিভির ঘেরাটোপে থাকবে পার্ক স্ট্রিট। পার্ক স্ট্রিট এলাকা ছাড়াও অন্যান্য এলাকার গির্জা মন্দির পার্ক ক্লাব ও হোটেলের সামনে মোতায়েন থাকবে পুলিশ। দক্ষিণেশ্বর ও বেলুড়ের গঙ্গার ঘাটে ৬ জন বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর কর্মী রাখা হবে