Date : 2022-05-27

কোভিডের নতুন প্রজাতির হদিশ চিনে?

তথাগত চ্যাটার্জি, নিউজ ডেস্ক : প্রথমে ডেল্টা। তারপরে একে একে অন্যান্য রূপ দেখা দিয়েছে করোনার। এবার সামনে এল কোভিডের আরও এক নতুন রূপের সন্ধান। জানা গিয়েছে কোভিডের এই নয়া প্রজাতির সন্ধান মিলেছে চিনে। এই প্রজাতির নাম নিয়ো-কোভ। তবে এখনই একেই করোনার নয়া প্রজাতির আখ্যা দিতে রাজি নন বিশেষজ্ঞদের একাংশ। সূত্রের খবর উহানের একটি গবেষণাপত্রে করোনার এই নয়া রূপ নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। স্বভাবতই এই প্রজাতির মারণক্ষমতা অনেক বেশি বলেও জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর কোনও প্রতিষেকই এর বিরুদ্ধে কার্যকর হবে না বলেও জানা গিয়েছে। নিয়ো-কোভের ছোবলে সংক্রমিত হয়ে প্রতি তিন জনের মধ্যে একজনের মৃত্যু হতে পারে বলেও জানা গিয়েছে।

তবে নিয়ো-কোভকে নিয়ে বেশ কিছুটা ধন্দও তৈরি হয়েছে বিশেষজ্ঞদের মধ্যে। ভাইরাস বিশেষজ্ঞদের একাংশেরা বলছেন অতীতে খোঁজ মিলেছিল এই প্রজাতির ভাইরাসের। জানা গিয়েছে ২০১৩ এবং ২০১৫ সালে হদিশ পাওয়া গিয়েছিল এই স্ট্রেনের। জানা গিয়েছে সেবার বাদুড় জাতীয় প্রাণীর শরীরে নিয়ো-কোভ প্রজাতির ভাইরাসের সন্ধান মিলেছিল আফ্রিকায়। তবে সে সময় করোনার বাড়-বাড়ন্ত দেখা যায়নি বিশ্ব জুড়ে। তবে অবাক করার মতো তথ্য মিলেছে। ভেক্টর রাশিয়ান স্টেট রিসার্চ সেন্টার অব ভাইরোলজি অ্যন্ড বায়ো-টেকনোলজির ওই রিপোর্টে জানা গিয়েছে নিয়ো-কোভের এখনকার যে প্রজাতির কথা বলা হয়েছে সেটি দুর্বল ও ক্ষীণ। তাই বিজ্ঞানীদের একাংশ এখনই বিশ্ববাসীকে আতঙ্কিত হতে বারণ করছেন। তবে ওমিক্রন দাপট দেখালেও এর মারণ ক্ষমতা ডেল্টা, আলফার থেকে অনেক কম বলে মনে করা হচ্ছে। পাশাপাশি ফুসফুসকেও অনেকাংশে কম আক্রান্ত করছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশ। দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে বিজ্ঞানীদের একাংশরা জানাচ্ছেন রেসপিটারি ট্র্যাককে ক্ষতিগ্রস্থ করছে ওমিক্রন। বেশকিছু দিন আগে করোনার আরেকটি প্রজাতি ডেল্টাক্রনকে নিয়ে আতঙ্ক তৈরি হয়েছিল। অন্যদিকে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের মধ্যেই ব্রিটেনে লকডাউনের বিধি-নিষেধ প্রত্যাহাক করে নেওয়া হয়েছে। তবে অন্যদিকে ভয় দেখাচ্ছে ওমিক্রনের অপর একটি ভ্যারিয়েন্ট বি-এ ২। ওমিক্রনের বি-এ ১ প্রজাতি থেকে দেড়গুণ দ্রুত ছড়াচ্ছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।