Date : 2022-05-27

করোনা রুখতে ভরসা রোবটে

রিমিতা রায়, নিউজ ডেস্ক : আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি থেকেই বেজিংয়ে বসতে চলেছে শীতকালীন অলিম্পিক্সের আসর। সেখানে ঘরোয়া দর্শকদের প্রবেশাধিকার নেই। দেশ-বিদেশের প্রায় ২ হাজার খেলোয়াড় এবং অলিম্পিক্সের সঙ্গে যুক্ত ২৫ হাজার অতিথি উপস্থিত থাকবেন সেখানে। এই করোনা পরিস্থিতিতে বিদেশ থেকে এত মানুষ আসবেন, সে ক্ষেত্রেই কী করে করোনা সংক্রমণ রোখা সম্ভব হবে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। করোনা বিধিতে বেশ কিছু কড়াকড়িও করা হচ্ছে। অনুমতি ছাড়া হোটেল চত্বর ছাড়া যাবে না। সমস্ত ক্রীড়াবিদ, দলের কর্মকর্তা, কর্মী চিনে রওনা হওয়ার আগে করোনা নেগেটিভ টেস্টের রিপোর্ট দেখাতে হবে। অলিম্পিক্স সাইটে যাওয়ার আগে বিমানবন্দরে আবারও টেস্ট করা হবে।এ দিকে তার মধ্যেই বেজিংয়ের কাছে শিয়ং প্রদেশে করোনা সংক্রমণ ছড়ানোয় লকডাউন জারি করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই সদস্যরা পৌঁছতে শুরু করেছেন চিনের রাজধানীতে।

অলিম্পিক্সে যাওয়া অ্যাথলিট এবং অন্যদের বারবার কোভিড টেস্ট হচ্ছে। কোনও এক জন আক্রান্ত হলেই তিনি শীতকালীন অলিম্পিক্সের বাইরে চলে যাবেন বেলও জানানো হয়েছে।। অলিম্পিক্স কর্মকর্তারাও আইসোলেশনের ব্যবস্থা করেছেন। করোনা ঠেকাতে এক অভিনব উপায়ও বার করেছেন তারা। অতিথি আপ্যায়নে এ বার মানুষ নয়, রোবট বাহিনী নিযুক্ত করেছে চিন। সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা গিয়েছে, বেজিংয়ের হোটেলে রুম সার্ভিসের জন্য রোবট পাঠানো হচ্ছে। অতিথিরা রোবটে বসানো প্যানেলে নির্দিষ্ট পিন নম্বর দিলেই খুলে যাচ্ছে ঢাকনা। রোবটের ভিতরে রাখা খাবারের পাত্র তুলে নিলে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে দরজা। হোটেলের বলরুমের ছাদে বসানো প্যানেল জুড়ে যাতায়াত করছে রোবটেরা। ছাদ থেকে টেবিলের উপরে নেমে আসছে তারা। এমনকি খাবার শেষে প্লেট তুলে নিয়ে যাচ্ছে রোবটই। শুধু তাই নয়, কোথাও আবার রোবটই রাঁধুনি। রোবটই তৈরি করছে নানান খাবার। কোথাও দক্ষ হাতে বানাচ্ছে হ্যামবার্গার কিংবা স্ট্রবেরি আইসক্রিম। করোনাকালে রোবটের ব্যবহার দিয়েই করোনা রুখতে উদ্যোগী হয়েছে বেজিং। মানুষের ছোঁয়াচ বাঁচিয়ে পরিষেবা চালু রাখতে তাই এই অভিনব প্রযুক্তিতেই ভরসা রেখেছে চিন।