Date : 2022-10-06

মা নিজের সন্তানকে ফেলে দিচ্ছে ভালুকের খাঁচায় !

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক : মা নিজের সন্তানকে ফেলে দিচ্ছে ভালুকের খাঁচায়। এমনই হাড়হিম করা ঘটনার সাক্ষী থাকল উজবেকিস্তানের তাশখন্দের একটি চিড়িয়াখানার। ভিডিওটি ঘুরে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা ইতিমধ্যে ভাইরাল।

নিজের এনক্লোজারের মধ্যেই হাঁটাচলা করছিল ভালুকটি। সেসময় চিড়িয়াখানায় তখন ভালুক দেখতে ব্যস্ত ছিলেন দর্শকরা।  ভিড়ের মধ্যেই তিন বছরের কন্যাসন্তানকে কোলে নিয়েছিলেন এক মহিলা। কোনোকিছু বুঝে ওঠার আগেই ভালুকের এনক্লোজারের মধ্যে শিশুটিকে ফেলে দেন ওই মহিলা। তারপরই সেখান থেকে চম্পট দেন। ভালুকের খাঁচায় পড়ে শিশুর কান্নার আওয়াজে তখন তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায় চিড়িয়াখানায়। শিশুটিকে খাঁচায় পড়তে দেখে ছুটে যায় ভালুকটি। যদিও তেমনভাবে হামলা চালায়নি জুজু নামে ভালুকটি। শিশুটিকে শুকেই চলে যায় সে। নিরাপত্তারক্ষীদের তৎপরতায় শিশুটিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, ওই মহিলা হঠাৎই তাঁর সন্তানকে ভালুকের খাঁচায় ১৬ ফুট গভীর পরিখায় ফেলে দেন। কিছুই করার ছিল না দর্শকদের। অগত্যা অসহায়ের মতো দেখছিলেন তাঁরা। খবর পেয়েই চিড়িয়াখানার কর্মীরা ছুটে যান ঘটনাস্থলে। চিড়িয়াখানার মুখপাত্র জানিয়েছেন, মহিলা শিশুটিকে হঠাৎ বাদামি রঙের ওই ভালুকের খাঁচায় ফেলে দেন। সবটাই ঘটে দর্শকদের সামনে। মহিলার উদ্দেশ্য ঠিক কী ছিল তা জানা যায়নি।

তারপর ভালুকটিকে খাবারের লোভ দেখিয়ে সেখান থেকে সরিয়ে নিয়ে যান চিড়িয়াখানার কর্মীরা। তদন্তের স্বার্থে অভিযুক্ত মহিলার নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ। খুনের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে তাকে। দোষী প্রমাণিত হলে ১৫ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে তার। শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উপর থেকে নীচে পড়ার ফলে মাথায় আঘাত লেগেছে তার। শিশুটির শারীরিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল।