Date : 2022-10-06

বার্ড ফ্লু আতঙ্ক থানেতে, ২৫,০০০ মুরগি মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত প্রশাসনের

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক : দেশে ফের ভয় ধরাচ্ছে বার্ড ফ্লু। বিহারে অত্যন্ত সংক্রামক H5N1 ভাইরাসের খোঁজ মিলেছিল একটি পোলট্রিতে। এবার মহারাষ্ট্রের থানেতেও হানা দিল একইরকম ভাইরাস। যার জেরে ২৫ হাজার মুরগিকে মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নিল স্থানীয় প্রশাসন।  জেলা শাসক ও কালেক্টর রাজেশ জে নারভেকর জানিয়েছেন,

থান থানার অন্তর্গত শাহপুর তহসিলে ভেহলি গ্রামে আচমকাই একসঙ্গে ১০০টি মুরগির মৃত্যুর হয়েছে বলে খবর আসে। এরপরই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। থানের জেলাশাসক রাজেশ জে নার্ভেকর জেলার পশুপালন বিভাগকে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের নির্দেশ দেন। এরপরই মৃত মুরগিগুলির নমুনা পরীক্ষা করতে পাঠানো হয় পুণের ল্যাবরেটরিতে। বার্ড ফ্লুতে আক্রান্ত হয়ে ওই পাখিদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়ে রিপোর্টে। সেই রিপোর্ট আসার পর শক্ত পদক্ষেপ নেয় প্রশাসন। পোলট্রি ফার্মের এক কিলোমিটারের মধ্যে থাকা প্রায় ২৫ হাজার পাখিকে মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এর আগে বিহারেও একইরকম আতঙ্ক ছড়িয়েছিল। বার্ড ফ্লুতে সংক্রমিত হয় একটি পোলট্রি ফার্মের মুরগি। পাটনার ওই পোলট্রিতে ৩ হাজার ৮৫৯টি মুরগির মধ্যে ৭৮৭টি মুরগির মৃত্যু হয়। এর পিছনেও ছিল H5N1 ভাইরাস। গত ১৮ জানুয়ারি থেকে ওই পোলট্রির মুরগিগুলি একে একে মারা যাচ্ছিল। নমুনা পরীক্ষার পরই সতর্কতামূলক পদক্ষেপ করতে বাকি মুরগিদের মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিহারের পর মহারাষ্ট্রের থানেতেও একই পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত নিল স্থানীয় প্রশাসন।

কমপক্ষে ১৫,৬০০ ব্রয়লার পাখিকে হত্যার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে শাহপুরে। এছাড়াও ৭,৯৬২ পাখির মধ্যে ২০টি হাঁস, ৯৮০ ডিম নষ্ট করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন, জেলা শাসক ও কালেক্টর রাজেশ জে নারভেকর। সংক্রমণ যাতে অন্যান্য জেলায় না ছড়িয়ে পড়ে, সেক্ষেত্রে নজর দেওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

আভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা মূলত বার্ড ফ্লু হিসেবে পরিচিত। ভাইরাসটি পাখি থেকে পাখিদের শরীরে সহজেই সংক্রমণ ঘটায়। বার্ড ফ্লুর মধ্যে এটি সবচেয়ে পরিচিত ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাস। তবে সাধারণত এই ভাইরাস মানুষের শরীরে ছড়ায় না।