Date : 2022-10-03

অতিরিক্ত কফি পানে লুকিয়ে বিপদ

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক: সকাল থেকে রাত, কফির কাপে চুমুক দিয়ে দিন যাপন চলছে। আর এই অতিরিক্ত কফি পান বার্তা আনছে বিপদের। ঘুমের সমস্যা থেকে স্নায়ুবিক দুর্বলতা, সব কিছুর মূলে রয়েছে কফি পান।
কোল্ড কফি হোক বা ব্ল্যাক কফি, কম বেশি কফি পছন্দ সবারই। সকালের ব্রেকফাস্ট থেকে বিকেলের আড্ডা, দিনে প্রায়ই ৫-৬ কাপ কফি হয়ে যায় হয়তো আপনার! কিন্তু জানেন কী, এই মাত্রাতিরিক্ত কফি পান বিপদ ডেকে আনছে! যুক্তরাষ্ট্রের অরল্যান্ডো হেল্থ ফিজিশিয়ান অ্যাসোসিয়েটসয়ের চিকিৎসক টড সনট্যাগ ইটদিস, নটদ্যাট ডটকময়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলেন, “সপ্তাহে ২৮ কাপের বেশি কফি পানের অর্থ দিনে গড়ে চার কাপ কফি পানের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকা উচিত। এর বেশি হলে স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়তে পারে”। অতিরিক্ত কফি পানের ফলে বেশ কয়েকটি সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন।

১.উদ্বেগ অনুভব করা: সাধারণত প্রতি আট আউন্স কফিতে ৯৫ মিলি গ্রাম ক্যাফেইন থাকে। দিনে চার কাপ কফি পানে প্রায় ৫০০ মিলি গ্রাম ক্যাফেইন গ্রহণ করা হয়। জার্নাল অফ সাইকোফার্মাকোলজিতে যুক্তরাজ্যের কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের করা প্রকাশিত সমীক্ষায় দেখা গেছে, অতিরিক্ত ক্যাফেইন গ্রহণ মানসিক চাপ, উদ্বেগ ও হতাশা বৃদ্ধি করে। সমীক্ষায় বলা হয়েছে ১০০০ গ্রামের বেশি ক্যাফেইন গ্রহণ উদ্বেগ বাড়াতে ভূমিকা রাখে।
২.ঘুমের সমস্যা: নিয়মিত কফি পান ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাতে সক্ষম। বিশেষ করে বিকেলের পরে পান করলে ঘুমের সমস্যা হতে বাধ্য। যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটসয়ে অবস্থিত ‘কলেজ অফ হলি ক্রস’ ১৯৭ জন স্কুলের ছাত্রছাত্রীর ওপর পর্যবেক্ষণ চালিয়ে দেখতে পায়, যারা কম ক্যাফেইন গ্রহণ করেন তাঁদের তুলনায়, পরিমিত কফি পান করেন এমন ব্যক্তিরা সকালে কফি পানে চাঙা থাকেন এবং দিনে ঘুম ঘুম অনুভব করেন। পরিমিত ক্যাফেইন গ্রহণ দেহের জন্য উপকারী। আর সকালে তা পান করলে রাতের ঘুম চক্রে সহায়তা করে।
৩.হৃদগতি বৃদ্ধি: ব্রাজিলের ফেডারেল ইউনিভার্সিটি অফ রিয়ো গ্রান্ডে দো সুলয়ের করা এক নিয়ন্ত্রিত সমীক্ষায় দেখা গেছে, প্রতি এক থেকে পাঁচ ঘন্টায় ১০০ মিলি গ্রাম ক্যাফেইন গ্রহণ হৃদগতি বাড়ায়। তবে এর জন্য নির্দিষ্ট পরিমাণ ক্যাফেইন গ্রহণ করতে হয়।
৪.স্নায়ুবিকভাবে দুর্বল: অতিরিক্ত ক্যাফেইন গ্রহণের ফলে দেহে নানান রকমের সমস্যা যেমন- মাথা ব্যথা, ঝাঁকুনি, ঘুমে সমস্যা ও এমনকি হৃদগতি বেড়ে যেতে পারে। তাই এমন সমস্যা দেখা দিলে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ গ্রহণ করা প্রয়োজন।
৫.দুর্বলতা অনুভব: দেখা গেছে ক্যাফেইন গ্রহণে দেহের ক্লন্তিভাব কমে। তবে অতিরিক্ত গ্রহণে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। বিশেষ করে অতিরিক্ত চিনি মেশানো হলে। ক্লিনিক্যাল নিউরোসায়েন্সয়ে প্রকাশিত ক্যালিফোর্নিয়ার ‘সিডার্স সাইনাই’ হাসপাতালের ‘সাইকিয়াট্রি অ্যান্ড বিহেইভিওরাল নিউরোসায়েন্স’ বিভাগের করা গবেষণা বলে, যদিও সীমিত ক্যাফেইন গ্রহণ দেহে শক্তি যোগায়, তবে বাড়তি চিনির সঙ্গে নিয়মিত কফি পান করা মানসিক স্বাস্থ্যকে দুর্বল করে ফেলে।
তাই পরিমিত ও সঠিক ঘুমের জন্য রাতে ঘুমানোর আগে কোনও ভাবেই কফি পান করা উচিৎ না। রাতে কফি পান করলে ঘুমের সমস্যা তো হবেই, শুধু তাই নয় পরবর্তী সময়ে মানসিক দুর্বলতাসহ নানান সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।