Date : 2022-10-05

আন্তর্জাতিক মঞ্চে বিস্ফোরক জেলেনস্কি

পৌষালী সেনগুপ্ত, নিউজ ডেস্কঃ রাশিয়ার অনবরত আক্রমণে ভয়ঙ্কর পরণতি, নৃশংসতা ছড়িয়ে রয়েছে ইউক্রেনের সর্বত্র। সেই দেখেই আর নিজেকে স্থির রাখতে পারলেন না ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।এদিন রুশ বর্বরতার ভিডিও দেখিয়ে ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদ থেকে রাশিয়াকে বহিষ্কারের দাবি তোলেন জেলেনস্কি। যাতে তাদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপে বাধা দিতে না পারে নিরাপত্তা পরিষদের এই স্থায়ী সদস্য দেশটি। এরপরেই তিনি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন, আন্তর্জাতিক আইন মেনে অবিলম্বে পদক্ষেপ করুন। না পারলে সবাই মিলে ইস্তফা দিয়ে রাষ্ট্রসংঘ ভেঙে দিন। বুচা শহরে রুশ কর্মকাণ্ড ইসলামিক স্টেটের মতো সন্ত্রাসবাদীদের কাজ বলে মন্তব্য করে তাঁর মন্তব্য, রাশিয়াকে আটকানোর যদি কোনও বিকল্প না থাকে, তাহলে একমাত্র কাজ নিরাপত্তা পরিষদ ভেঙে দেওয়া। রাষ্ট্রসংঘ বন্ধ করে দেওয়া।ইউক্রেনের বুচা শহরে নারকীয় অত্যা চারের দৃশ্যয দেখে সারা বিশ্ব শিউরে উঠেছিল।স্থানীয় বাসিন্দাদের নিথর দেহ সরিয়ে গণকবর দেওয়ার কাজ এখনও সম্পূর্ণ হয়নি।এরই মধ্যে জেলেনস্কি জানালেন বরোদিয়াঙ্কার পরিস্থিতি নিয়ে তাঁর দুশ্চিন্তার কথা। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দ্যেশ্যে জানালেন সাংবাদিকরা যেন এই শহর গুলিতে আসেন। এসে সেখানকার নারকীয় পরিস্থিতি দেখেন। যাতে বিশ্বের মানুষ জানতে পারে রুশ নৃশংসতার কথা।সেই পরিপ্রেক্ষিতেই নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে একটি ভিডিও দেখান জেলেনস্কি। সেখানে নৃশংসতার দৃশ্য দেখান তিনি। দৃশ্যটি দেখিয়ে তিনি রাশিয়াকে নিরাপত্তা পরিষদ থেকে বহিষ্কারের কথা বলেন। বিস্ফোরকের সুরে তিনি বলেন হয় রাশিয়ার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আইন মেনে ব্যবস্থা নিন নয়তো নিরাপত্তা পরিষদ ভেঙে দিন। আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের মতে ধংসের একদম শেষ সীমায় দাঁড়িয়ে আছেন জেলেনস্কি। কিন্তু সেই পরিস্থিতিতেও লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। বহুবার তাঁর দেশ ছাড়ার গুজব রটেছিল। কিন্তু প্রতিবারই তিনি তা মিথ্যে প্রমাণ করেছেন। একাই লড়ে যাবেন তাঁর শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত এটাও জানিয়েছেন তিনি। তাই যত সময় এগোচ্ছে বিস্ফোরক হয়ে উঠছেন জেলেনস্কি। এমনটাই মত আন্তর্জাতিক মহলের।