Date : 2022-10-03

গাড়ির নম্বর দিয়ে ট্রাফিক কেস: নয়া প্রযুক্তি কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক: গাড়ির নম্বর দিয়েই হবে ট্রাফিকের জরিমানা। কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের তরফ থেকে নতুন প্রযুক্তি শুরু করা হল। ৩ টি গার্ডকে সামনে রেখে শুরু হল এই প্রযুক্তি।

চলতি সপ্তাহ থেকে ট্রাফিকের কেস করার প্রক্রিয়া আরও সহজ হতে চলেছে। রাস্তায় গাড়ির চালককে দাঁড় করিয়ে কেস করার দিন শেষ ট্রাফিক সার্জেন্টদের। এবার থেকে শুধু গাড়ির নম্বর পাওয়া গেলেই অ্যাপের মাধ্যমে গাড়ির যাবতীয় কেস করতে পারবেন ট্রাফিকের অফিসাররা। গাড়ির নম্বর অ্যাপে দেওয়া মাত্রই যাবতীয় তথ্য চলে আসবে সংশ্লিষ্ট সার্জেন্টর কাছে। জরিমানা হলে সেই তথ্য চলে যাবে গাড়ির মালিক ও যে এলাকায় গাড়ির রেজিস্ট্রেশন হয়েছে সেই এলাকার আদালতের কাছে। এর মাধ্যমে গাড়ির মালিক নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে অনলাইনে বা লালবাজারের ট্রাফিক বিভাগে গিয়ে জরিমানার টাকা জমা দিতে পারবে। গাড়ি যে এলাকায় রেজিস্ট্রেশন হয়েছে ওই এলাকার আদালতে গিয়েও জরিমানা জমা দিতে পারবেন গাড়ির মালিক। অন্যথায় গাড়ির কাগজ-পত্র বিষয়ক কোনও কাজ গাড়ির মালিক করাতে পারবেন না। বিশেষ অ্যাপের মাধ্যমে সোমবার থেকে, কলকাতা পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের তরফ থেকে এই পরিষেবা শুরু হয়েছে বলে সূত্রের খবর। প্রাথমিক ভাবে ৩ টি ট্রাফিক গার্ডে এই পরিষেবা শুরু হচ্ছে, হেডকোয়ার্টার ট্রাফিক গার্ড, হাওড়া ব্রিজ ট্রাফিক গার্ড ও সাউথ ট্রাফিক গার্ড। এই ৩ টি ট্রাফিক গার্ডের সার্জেন্টদের স্মার্টফোনে থাকবে এই অ্যাপ। আগামী ৩ মাসের মধ্যে ২৫ টি গার্ডেই এই পরিষেবা চালু করা হবে। ইতিমধ্যেই এই ৩ টি গার্ডের ৫ জন করে সার্জেন্টকে নিয়ে বিশেষ প্রশিক্ষণও দেওয়া হয়েছে নতুন এই প্রযুক্তির বিষয়। এই ধরণের পদ্ধতিকে বলা হয় ন্যাশনাল ইন্টিগ্রেটেড কমিউনিকেশন সিস্টেম। হায়দরাবাদ, মুম্বাইয়ের পর দেশের তৃতীয় শহর হিসেবে কলকাতায় শুরু হতে চলেছে ট্রাফিকের এই পরিষেবা। এর মাধ্যমে ট্রাফিক বিভাগে স্বচ্ছতা বজায় রাখা সম্ভব। পাশাপাশি ট্রাফিক সার্জেন্টদের জরিমানা করার পন্থা আরও সহজতর হল বলেই মনে করছেন ট্রাফিক বিভাগের একাংশ।