Date : 2022-05-27

বালিগঞ্জের রঙ সবুজই – ফিনিক্স হয়ে দ্বিতীয় বামেরা

সায়ন্তিকা ব্যানার্জি, সাংবাদিকঃ বালিগঞ্জের রঙ সবুজ। বিপুল ব্যবধানে জিতলেন তৃণমূল প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। দ্বিতীয় স্থানে বাম প্রার্থী সায়রা শাহ হালিম, এর পর বিজেপি প্রার্থী কেয়া ঘোষ। চতুর্থ স্থানে কংগ্রেস প্রার্থী কামরুজ্জামান চৌধুরী।

সকাল থেকে গণনার শুরুতেই এগিয়ে যান বাবুল সুপ্রিয় একটা করে রাউন্ড গণনা শেষ হয় আর ক্রমশ ব্যবধান বাড়তে থাকে। একটা সময় গিয়ে তার ব্যবধান হয়ে যায় ১০ হাজার। গণনার ট্রেন্ড দেখেই বোঝা যাচ্ছিল কি হতে চলেছে ফলাফল। আর শেষ অবধি তাই হল। সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের পর বালিগঞ্জ আরও এক বার আস্থা রাখল মমতাতেই, ঘাসফুলেই।

প্রচারে যে সেই অর্থে সাড়া ফেলেছিলেন বাম প্রার্থী সায়রা হালিম তা বলা যাবে না। কিন্তু শুরু থেকেই চমকে দিয়ে তিনি দ্বিতীয় স্থানেই ছিলেন এবং শেষ অবধি সেই স্থানই ধরে রাখলেন। প্রায় ৩০ হাজারের কাছাকাছি ভোট তিনি পেয়েছেন যা বাম শিবিরের কাছে নয়া অক্সিজেন। তাহের পুরে বোর্ড গঠনের পর এই ফলাফল তাদের নতুন করে লড়াই করার অস্ত্র দিল তা বলাই যায়।

মুষড়ে পড়ার দিন গেরুয়া শিবিরের। প্রচারে বেড়িয়ে বিপুল সাড়া ফেলেছিলেন কেয়া ঘোষ। মনে করা হয়েছিল দ্বিতীয় স্থানে থাকবে বিজেপি। কিন্তু বাস্তবে হল না সেটা। প্রচারের সাড়া কাজে এল না ভোট বাক্সে। মানুষ আস্থা রাখতে পারলেন না বিজেপির ওপর। শুরু থেকেই চতুর্থ স্থানে ছিলেন তিনি। গণনার মাঝামাঝি তিনি পিছনে ফেলে দেন কংগ্রেস প্রার্থী কামরুজ্জামান চৌধুরীকে। শেষ অবধি তিনি এই স্থানই ধরে রাখলেন।কার্যত মুখ রক্ষা হল তার এমনটা বলা যায়। যদিও তার জমানত জব্দ হয়েছে

অন্যদিকে কংগ্রেসের ফলও ভীষণ শোচনীয়। মানুষ যে কোন মতেই আস্থা রাখেনি হাতে আজকের ফল তার প্রমাণ। সব মিলিয়ে হাড্ডা হাড্ডি লড়াইতে মিটল বালিগঞ্জ উপনির্বাচন।