Date : 2022-05-28

বৃদ্ধার সম্পত্তি পেলেন রাহুল

পৌষালী সেনগুপ্ত, নিউজ ডেস্ক : সম্পত্তির উত্তরাধিকার পায় আপনজন বা দূর সম্পর্কের কেউ।আবার পরবর্তী প্রজন্মকে সম্পত্তি দান করে যায় পূর্বপুরুষ। এ স্বাভাবিক ঘটনা। কিন্তু নিজের সম্পত্তি একদম অন্য কাউকে বিশেষ করে কোনো রাজনৈতিক নেতাকে দেওয়ার ঘটনা এই প্রথম। এরকমই এক ঘটনা ঘটিয়ে শিরোনামে এসেছেন দেহরাদুনের এক মহিলা। বছর ৭৮ এর এক দৃদ্ধা তাঁর সম্পত্তি তুলে দিলেন রাহুল গান্ধীর নামে। শুনতে অবাক লাগলেও ঘটনাটি সত্যিই।আর অশক্ত বৃদ্ধার এই পদক্ষেপ নিয়ে গোটা দেশ জুড়ে চলছে জোর চর্চা। আলোচনার কেন্দ্রে পুষ্পা মুঞ্জিয়াল নামে দেরাদুনের বৃদ্ধা।দেরাদুন মেট্রোপলিটান কংগ্রেসের সভাপতি লালচাঁদ শর্মা জানিয়েছেন, সম্প্রতি রাহুল গান্ধীর নামে নিজের উইল করে গিয়েছেন বছর আটাত্তরের পুষ্পা মুঞ্জিয়াল।কেন এমনটা করলেন? প্রশ্নে প্রশ্নে জর্জরিত পুষ্পাদেবী লাজুকমুখে জানাচ্ছেন, রাহুলকে তাঁর বড্ড ভাল লাগে। তাঁর চিন্তাভাবনা প্রেরণা জোগায়।

আর সেই কারণেই তাঁর যাবতীয় সম্পত্তি রাহুলের নামেই লিখে দিলেন।পুষ্পাদেবী কী দিলেন সোনিয়া পুত্রকে? জানা গিয়েছে, নগদ ৫০ লক্ষ টাকা এবং ১০ তোলা সোনা দিয়েছেন তিনি। সারাজীবন ধরে এই সম্পত্তি জমিয়েছেন বছর আটাত্তরের বৃদ্ধা। আর পুষ্পা দেবীর সমস্ত সম্পত্তির উত্তরাধিকার হলেন রাহুল।রাহুল গান্ধী উত্তরাখণ্ডে ঢালাও নির্বাচনী প্রচারে সেরেছিলেন। কংগ্রেস যদিও উত্তরাখণ্ডে ক্ষমতায় আসেনি কিন্তু রাহুলের সেসব উদ্দীপক বাণী গভীরভাবে দাগ কেটে গিয়েছে পুষ্পার মনে। রাহুলের বাণীতে প্রেরণা খুঁজে পেয়েছেন তিনি। রাহুলের মধ্যেই নিজের উত্তরাধিকারের ছায়া দেখেছেন এই বৃদ্ধা। আর তাতেই পুষ্পা মুঞ্জিয়াল সব দিয়ে দিলেন রাহুলকে।আর এই ঘটনা শিরোনামে আসতেই সকলের নজর কেড়েছেন এই বৃদ্ধা।যদিও এখনো পর্যন্ত এই ঘটনার প্রেক্ষিতে রাহুল গান্ধীর কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।