Date : 2022-12-09

ভয়াবহ পরিস্থিতি উত্তর কোরিয়ায়

পৌষালী সেনগুপ্ত, নিউজ ডেস্ক : করোনা সংক্রমণ আটকাতে পারল না কিম জং উনের উত্তর কোরিয়া। ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টে ঘায়েল কিমের দেশের মানুষজন।মাত্র তিনদিনেই আক্রান্ত কয়েক লক্ষ। বাড়ছে মৃত্যুও। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে উত্তর কোরিয়া জুড়ে লকডাউন জারি করেছেন কিম। রবিবার সকালে জ্বরের প্রকোপে আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৪২। ভয় ধরাচ্ছে সে দেশের সংক্রমিতের সংখ্যাও। ওমিক্রন সংক্রমণের খবর প্রকাশ্যে আসার মাত্র তিনদিনের মধ্যে উত্তর কোরিয়ায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮ লক্ষ ২০ হাজার ৬২০ জন। তাঁদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অন্তত ৩ লক্ষ ২৪ হাজার ৫৫০ জন। স্বাভাবিকভাবেই দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন রাষ্ট্রপ্রধান কিম জং উন। তিনি তড়িঘড়ি পলিটবুরোর বৈঠক ডাকেন।

সেখানে তিনি বলেন “সংক্রমণের ফলে উত্তর কোরিয়ায় বিরাট পরিবর্তন এসেছে। বিরাট ধাক্কা খেয়েছে দেশের অর্থনীতিও। এখনও পর্যন্ত এদেশে এটাই সবচেয়ে বড় বিপর্যয়।” করোনা সংক্রমণ রুখতে ইতিমধ্যে রাজধানী পিয়ং ইয়ং-সহ প্রতিটি প্রদেশ, শহর, নগরে লকডাউন জারি করা হয়েছে। বন্ধ রাখা হয়েছে কল-কারখানা, অফিস-কাছারিও। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দেশজুড়ে জরুরি ভিত্তিতে কোয়ারেন্টাইন পরিষেবা চালু করা হয়েছে। সরকারের সাফাই, দেশের একটা বিরাট অংশের মানুষ করোনার টিকা নেননি। তাঁদের থেকেই নতুন করে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। আর তাই প্রতিদিন লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।বৃহস্পতিবারই রাজধানী পিয়ং ইয়ংয়ে প্রথম ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের হদিশ মেলে। সেদিনই লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন কিম। তার পরেও শেষরক্ষা হল না। মাত্র তিনদিনের মধ্যে সংক্রমিত হল লক্ষাধিক উত্তর কোরিয়াবাসী। তবে লকডাউন করেও কি সংক্রমণ রোখা যাবে সেটা নিয়েই উঠছে প্রশ্ন।